প্রদীপ অধিকারী: জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জিয়াউর রহমান(৩৬) নামের এক কাঠ মিস্ত্রিকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়নের কুসুম্বা গ্রামে।

জিয়াউর ঐ গ্রামের মো: ইব্রাহিম মন্ডলের ছেলে। রবিবার রাত্রি আনুমানিক ৯টার সময় চাঁনপাড়া বাজারের ফার্ণিচারের দোকান হতে বাড়ী ফেরার পথে চাঁনপাড়া তুলশীগঙ্গাঁ ব্রীজের কাছে পৌছালে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ওঁৎ পেতে থাকা কাঠ ব্যবসায়ী উপজেলার আমিরপুর গ্রামের সুবুর মেম্বারের ছেলে মিজানুর রহমান অজ্ঞাত আরো ৭জনকে নিয়ে রাস্তায় রশি টেনে জিয়াউরের পথ গতিরোধ করে। এসময় জিয়াউর সাইকেল থেকে রাস্তার পাশে পড়ে যায়। ঐ সময় মিজানুরের সাথে থাকা অজ্ঞাত ব্যক্তিরা তাকে টেনে পাশের বাঁশ ঝাড়ে নিয়ে গিয়ে গলায় রশি বেধে অর্তিকিত হামলা ও এ্যালোপাথ্যারী মারপিট করে । এতে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তার গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। পরে মৃত ভেবে তাকে তুলে এনে রাস্তায় ফেলে দিয়ে চলে যায়। স্থানীয় পথচারীরা রাস্তায় তার দেহ পরে থাকতে দেখে বাড়ীতে খবর দিলে তাকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করেন। এব্যাপারে জিয়াউর রহমান বাদী হয়ে পাঁচবিবি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের পর থেকে অভিযুক্ত মিজানুর রহমানের বাবা ছবুর মেম্বার জিয়াউরের বাড়ীতে গিয়ে হুমকি দেয় যে, আমার ছেলের বিরুদ্ধে মামলা করলে এর ফল ভাল হবে না। অভিযুক্ত মিজানুর রহমানের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি মারপিটের বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানান। পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব সাংবাদিকদের বলেন, উক্ত ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। আসামী আটকের চেষ্টা চলছে।

Previous articleরায়পুরে পানিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু
Next articleরায়পুরে বৃদ্ধকে পেটানোর মামলা: যুবলীগ নেতা কারাগারে, অন্যজন গ্রেপ্তার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।