বাংলাদেশ প্রতিবেদক: চট্টগ্রামের এমএ মান্নান ফ্লাইওভারে (বহদ্দারহাট ফ্লাইওভার) শেষ পর্যন্ত ফাটল পায়নি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) প্রতিনিধি দল। আরাকান সড়কমুখী পাশাপাশি দুটি র‍্যাম্পের পিলার পরিদর্শন করে বিশেষজ্ঞরা একে ‘ফলস কাস্টিং’ বলে জানিয়েছেন।
মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) দুপুরে র‍্যাম্পটি পরিদর্শন করে বিশেষজ্ঞ দলটি।

মঙ্গলবার সকালে পরিদর্শন শেষে তারা ফ্লাইওভারটি যানচলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়ে ভারী যানবাহন চলাচল পরিহার করতে পরামর্শ দেন।

তদন্ত টিমে ছিলেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. আব্দুর রহমান, সড়ক ও জনপদ অধিদফতরের তত্ত্বাবধায়ক মো: হাফিজুর রহমান এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রতিনিধি দল।

এর আগে গত ২৯ অক্টোবর চট্টগ্রাম নগরের বহদ্দারহাটের এম এ মান্নান ফ্লাইওভার পরিদর্শনের পর বিশেষজ্ঞ দল এটি ফাটল নয় দাবি করলেও এতে আশ্বস্ত হতে না পেরে নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটি করতে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের দ্বারস্থ হয় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন। তদন্তে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সম্পৃক্ততা এড়িয়ে সংস্থা দুটির প্রতিনিধির মাধ্যমে নিরপেক্ষ তদন্তের সিদ্ধান্ত হয় সেসময়।

গত ২৫ অক্টোবর সোমবার বহদ্দারহাট এম এ মান্নান ফ্লাইওভারের কালুরঘাটমুখী আরাকান সড়কের সাথে সংযুক্ত র‌্যাম্পটিতে ফাটলের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এনিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে ওইদিন রাতেই চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ও সিএমপি মিলে যান-চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়। সেদিন রাত ১১টা থেকেই র‌্যাম্পটিতে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। পরদিন ২৬ অক্টোবর মঙ্গলবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী ও প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম ফাটলের কারণ হিসেবে নির্মাণত্রুটির কথা জানিয়েছিলেন।

Previous articleমনপুরায় বিয়ের প্রলোভনে যুবতীকে ধর্ষণ, যুবক আটক
Next articleফকিরহাটে কলেজশিক্ষকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।