বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজশাহীর পুঠিয়ায় মামাতো বোনকে ভালোবেসে প্রাণ বিসর্জন দিয়েছেন রাজশাহী কলেজের ছাত্র বুলবুল আহমেদ (২৬)। বুলবুলের প্রেমিকা মামাতো বোন রাজশাহী সিটি কলেজের ছাত্রী তুলি খাতুন (২০) তার বান্ধবী একই কলেজের ছাত্রী জেমি আক্তারকে (২০) বিয়ের প্রস্তাব করায় অভিমান করে আত্মহত্যা করেন বুলবুল।

মঙ্গলবার রাজশাহী শহরের লক্ষ্মীপুর মাস্টার শেফ হোটেলের সামনে তার প্রেমিকা তুলির সামনে বুলবুল বিষপান করার পর নিজের বুকে ছুরি চালিয়ে আত্মহত্যা করেন।

বুলবুল রাজশাহী কলেজের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্র এবং তুলি ও জেমি রাজশাহী সিটি সরকারি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

বুলবুলের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তার প্রেমিকা তুলি তার আপন মামাতো বোন। তুলি পুঠিয়ার তারাপুরের রহিমুদ্দিনের মেয়ে। তাদের বাড়ির দূরত্ব দেড় কিলোমিটার। আত্মীয়তার সূত্রে প্রায়ই যাতায়াত করতো তারা। ছোট বেলা থেকেই প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তাদের। এরই মধ্যে চারঘাট উপজেলার আড়ানি এলাকার আজমীর হোসেনের সাথে বিয়ে হয় তুলির। আজমীর অলিম্পিক কোম্পানিতে চাকরি করতেন। তাদের একটি ছেলে সন্তান আছে। এর পরও তুলিকে ভালোবাসতে থাকেন বুলবুল। নিরুপায় হয়ে তুলি তার বান্ধবী নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার জাহানপুর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের মেয়ে জেমিকে বিয়ে করার প্রস্তাব দেন বুলবুলকে। তাদের তিনজনের সাক্ষাৎ হয় রাজশাহীর লক্ষ্মীপুর মাস্টার শেফ রেস্তোরাঁয়। তুলির এমন প্রস্তাবে অভিমান করে ওই রেস্তোরাঁর সামনে বিষপানের পর বুকে ছুরি চালিয়ে আত্মহত্যা করেন বুলবুল।

রাজশাহী রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে কোনো পক্ষেরই অভিযোগ নেই। তুলি ও তার বান্ধবী জেমিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের পরিবারের কাছে দেয়া হয়েছে। বুধবার ময়নাতদন্তের পর বুলবুলের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Previous articleসরকার গায়ের জোরে দ্রব্যমূল্য বাড়াচ্ছে: রিজভী
Next articleপ্রেম থেকে বিয়ে, মনোমালিন্যের পর স্বামীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা !
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।