ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানসহ দুইজনের নামে চাঁপাইনবাবগঞ্জে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে (আমলী আদালত সদর) মামলার আবেদন করা হয়েছে। বুধবার (২২ ডিসেম্বর) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. রবিউল হক দোলন বাদী হয়ে মামলাটর আবেদন করেছেন।

মামলার আবেদনে বাদী অভিযোগ করেছেন, গত ১ ডিসেম্বর এক সাক্ষাতকারে সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান উদ্দেশ্যমূলক জিয়া পরিবার ও ব্যারিস্টার জাইমা রহমান সম্পর্কে অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়েছেন। যা যে কোনো নারীর জন্য মর্যাদা হানিকর। যা পরবর্তীতে ১ নম্বর আসামি ডা. মুরাদ হাসান তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে প্রচার ও প্রকাশ করেন।

দ্বিতীয় আসামি মহিউদ্দিন হেলাল নাহিদ ওরফে নাহিদ হেলাল এই বক্তব্য ধারণ করে ইউটিউবে আপলোড করায় আসামিদ্বয়ের অশালীন মিথ্যাচার ও নারীর প্রতি অবমাননামূলক বক্তব্য মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে। যে কারণে আমি ক্ষুব্ধ হয়ে আজ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার আবেদন দাখিল করা হয়েছে।

আদালতের বিচারক মো. হুমায়ন কবীর বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে পরবর্তী আদেশের জন্য রেখেছেন। বাদী অ্যাড. রবিউল হক দোলন বলেন, সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে দেশের স্বনামধন্য জিয়া পরিবারের প্রতি এমন বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করেছি। কারন এসব মন্তব্য অত্যান্ত অপমানজনক, মানহানিকর ও নারী বিদ্বেষী।

মামলার আইনজীবী অ্যাড. মোল্লা হাসান শরীফ জানান, ১৮৬০ সালের পেনাল কোড ১৫৩-ক/৫০৫-ক/৫০৯ ধারায় মানহানি ও শ্লীলতাহানির অপরাধে মামলার আবেদন করা হয়েছে। এমনকি বিচারক বাদীর জবানবন্দি নিয়েছেন এবং পরে আদেশ দিবেন বলে জানিয়েছেন।

Previous articleরায়হান হত্যা: পলাতক নোমানের অনুপস্থিতিতেই বিচার শুরু হচ্ছে
Next articleপ্রেমের টানে রাজমিস্ত্রিদের হাত ধরে মুম্বাই পাড়ি, আসানসোলে খোঁজ মিলল ২ গৃহবধূর
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।