সাহারুল হক সাচ্চু: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় গরীব ঘরের একই পরিবারের আপন তিন বোন হলো বাক প্রতিবন্ধী ৷ এদের মধ্যে দু’বোন বিয়ের পর বাবার ভিটেতেই স্বামী সন্তানদের নিয়ে বসবাস ও সংসার করছে৷ আর ছোটো আরেক বোনে প্রায় বাইশ বছর বয়সী শিপ্রা রাণী দাসের জীবনে ঘটেছে এক অনাকাংখিত ঘটনা৷

উল্লাপাড়া পৌর এলাকার ঝিকিড়া মহল্লার দাস পাড়ার স্বর্গীয় কমল চন্দ্র দাসের পাচ সন্তানের তিন জন মেয়ে ও ছেলে সন্তান দু’জন ৷ মেয়ে সন্তান তিনজনই বাক প্রতিবন্ধী ৷ এরা হলো – রিনা রাণী দাস (২৭) , বিনা রাণী দাস (২৫) ও প্রায় বাইশ বছর বয়সী শিপ্রা রাণী দাস ৷ সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে , বড় বোন রিনা রাণী দাস এর অন্য এলাকায় বিয়ে হলেও এখন স্বামী সুমন চন্দ্র দাসকে নিয়ে বাবার ভিটেয় বসবাস করছে৷ তাদের দু’টি সন্তান আছে৷ আরেক বোন বিনা রাণী দাস বিয়ের পর থেকে স্বামী সঞ্জয় চন্দ্র দাসকে নিয়ে বাবার ভিটেতেই বসবাস করছে৷ তাদের সংখ্যা দু’জন ৷ গরীব ঘরের এরা তাদের পেশায় গৃহস্থালি কাজে ব্যবহৃত বাশের তৈরী সামগ্রীর ব্যবসা করেন বলে জানানো হয় ৷ এদের পরিবার থেকে জানানো হয় বাক প্রতিবন্ধী তিন বোন সরকারী প্রতিবন্ধী ভাতা পায়৷

Previous articleরোসাটম হেলথকেয়ারের পারমাণবিক ওষুধ উদ্ভাবন স্বাস্থ্যসেবায় বিপ্লব ঘটাচ্ছে
Next articleচাঁপাইনবাবগঞ্জের বিসিক শিল্প নগরী জায়গার সল্পতাসহ বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।