বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ফিল্মি স্টাইলে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে তিন ঘণ্টা ধর্ষণ করা হয়। পরে অসুস্থ হয়ে গেলে ওই গৃহবধূকে গভীর রাতে বাসায় পৌঁছে দিয়ে যায় ওই ধর্ষকেরা।

চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের নীলা মোড়ে গত ২৫ ডিসেম্বর দিনগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর লোকলজ্জার ভয়ে দু’দিন চুপ থাকেন ওই গৃহবধূ। অবশেষে বিষয়টি পুলিশকে জানালে সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) রাতে অভিযুক্ত তিনজনের মধ্যে দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার দু’জন হলেন- রুবেল হোসেন (৩২) ও নাজিম হোসেন (৩০)। বিল্লাল হোসেন নামের অপর অভিযুক্ত ধর্ষক পলাতক রয়েছেন।

মামলার সূত্রে পুলিশ জানায়, গত শনিবার খেজুরের গুড় কিনতে জনৈক আব্দুল আলীমের বাড়ি যান ওই গৃহবধূ। রাত ৮টার দিকে পাখিভ্যানে করে বাড়ি ফেরার সময় তিনজন মোটরসাইকেলে এসে গাড়ির গতিরোধ করে। এরপর ওই গৃহবধূকে জোরপ করে তুলে নিয়ে যায়। ঘটনার সময় ভ্যানচালক বাধা দিলে তাকে মারধর করে অভিযুক্তরা।

পরে তারা গৃহবধূকে পৌরসভার বুজরুক গড়গড়ী মাদারতলা রোডের ইটভাটার পার্শ্বে আমবাগানে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এরপর রাত ১২টায় ওই গৃহবধূকে তার বাড়িতে দিয়ে যায় ধর্ষকরা।

লোকলজ্জার ভয়ে দু’দিন চুপ থাকার পর সোমবার রাতে ধর্ষক তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ। মামলার দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হলেও বিল্লাল হোসেন নামে অপরাজন পলাতক রয়েছেন। তাকে ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, গত ২৫ ডিসেম্বর রাতে আসামিরা গৃহবধূকে ধর্ষণ করে পরে বাড়িতে দিয়ে যায়। লোকলজ্জার ভয়ে গৃহবধূ মুখ খোলেননি। সোমবার রাতে অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Previous articleকক্সবাজারে এবার স্কুলছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় আরেক আশিক গ্রেপ্তার
Next articleডিভাইডার ভেঙে বেপরোয়া বাস উঠে গেল মাইক্রোর ওপর
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।