বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বাবা-ভাইয়ের সামনে প্রেমিকা বলে দিয়েছে ‘আমি তাকে চিনি না’। এ অভিমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়ে মিরসরাইয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক স্কুল শিক্ষার্থী। আব্দুল আউয়াল বাকের (১৭) নামের ওই শিক্ষার্থী সোমবার দিবাগত গভীর রাতে গলায় চাদর পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন।

তিনি উপজেলার নাহেরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর বাণিজ্য বিভাগের শিক্ষার্থী। খবর পেয়ে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

বাকের উপজেলার জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড পরাগলপুর এলাকার আশরাফ আলী সওদাগর বাড়ির আলমগীর হোসেনের ছেলে। আত্মহনন বেছে নেয়া এ কিশোর ৩ বোন ২ ভাইয়ের মধ্যে সবার ছোট।

বাকেরের বড় বোন আরবের নেছা আনিকা বলেন, আমার ভাইয়ের সাথে তার স্কুলের একটি মেয়ের সম্পর্ক ছিল। ওই মেয়েকে নিয়ে ২-৩ দিন আগে জোরারগঞ্জ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মুক্তিযুদ্ধের বিজয়মেলায় ঘুরতে গিয়েছিল। বিষয়টি মেয়ের ভাই ও বন্ধুরা দেখে ফেলে। সোমবার আবার মেয়েটির সাথে দেখা করতে গেলে মেয়ের ভাই ও বন্ধুরা মিলে তাকে মারধর করে। এ সময় মেয়েটিও বলে দেয় ‘তাকে চিনি না’। এরই জের ধরে রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়ে গলায় চাদর পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে বাকের।

জোরারগঞ্জ থানার এসআই মামুনুর রশিদ বলেন, খবর পেয়ে সকাল সকাল ১১টায় লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। লাশের ময়নাতদন্তের প্রস্তুতি চলছে।

Previous articleমৃত্যু যেখানে অবধারিত, সেখানে ভয় পাওয়ার কিছু নেই: গয়েশ্বর
Next articleকক্সবাজারে নারী পর্যটককে গণধর্ষণ: এবার এজাহারভুক্ত আসামী জয় গ্রেপ্তার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।