বাংলাদেশ প্রতিবেদক: : মুলাদীতে অবৈধ ড্রেজার পুড়িয়ে দিয়েছেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. রিয়াজুর রহমান। তিনি গতকাল সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় উপজেলার আড়িয়ালখাঁ নদীতে অভিযান চালিয়ে একটি ড্রেজার পুড়িয়ে দেন। নাজিরপুর নৌ থানার কাছাকাছি ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করছিলেন ব্যবসায়ীরা।

অভিযানের টের পেয়ে ড্রেজার মালিক ও কর্মচারীরা পালিয়ে যাওয়া কাউকে আটক করা যায়নি বলে জানিয়েছেন ওই কর্মকর্তা। দীর্ঘ দিন ধরে উপজেলার আড়িয়ালখাঁ ও জয়ন্তী নদী থেকে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে বলে জানান স্থানীয়রা। নাজিরপুর গ্রামের আব্দুল জলিল জানান, একটি প্রভাবশালী মহল দীর্ঘ দিন ধরে আড়িয়ালখাঁ ও জয়ন্তী নদী থেকে বালু উত্তোলন করছে। এতে নদী ভাঙন বৃদ্ধি পেয়েছে। ১০/১৫টি ড্রেজার দিয়ে প্রতিনিয়ত বালু উত্তোলন করায় গোটা উপজেলা হুমকিতে রয়েছে।

নাজিরপুর বন্দরের বাসিন্দা আবুল কালাম জানান, সোমবার বালু ব্যবসায়ীরা নাজিরপুর বাজারের কাছে ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করতে ছিলো। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে বন্দরের দিকে একটি স্পিড বোট আসতে দেখে ড্রেজার মালিক ও কর্মচারীরা নদী সাতরে পালিয়ে যায়। পরে কর্মকর্তা ওই ড্রেজারটি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেন। সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. রিয়াজুর রহমান জানান, মুলাদী উপজেলায় কোনো বালু মহাল নেই। তাই উপজেলার যেকোনো স্থান থেকে বালু উত্তোলন অবৈধ। এসব বালু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হয়েছে। সোমবার নাজিপুর নৌ থানার কাছে একটি ড্রেজার পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মালিক না পাওয়ায় কাউকে আটক করা যায়নি। তবে অভিযান অব্যহত থাকবে।

Previous articleশিবগঞ্জের ১৩ ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত
Next articleরংপুরে র‌্যাবের অভিযানে ব্লাকমেইলিং চক্রের সদস্য স্বামী-স্ত্রী গ্রেফতার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।