মোঃ জালাল উদ্দিন: ব্যাম্বু ট্রি নেকেট স্নেক বাংলাদেশ তথা বিশ্বে বিরল প্রজাতির একটি প্রাণী। বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ফিরে পেলা নতুন জীবন। শ্রীমঙ্গল ও কমলগঞ্জ লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের জানকিছড়া নামক স্থানে বিরল প্রজাতির ব্যাম্বু ট্রিনকেট স্নেক (Bamboo Trinket Snakes) ও একটি ছোট গন্ধগকূল অবমুক্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এ দুটি প্রানী অবমুক্তকালে উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণী বিদ্যা বিভাগের প্রফেসর ড. কামরুল হোসেন ও ডা. মনিরুল এইচ খান, সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মিহির কান্তি দো, শ্রীমঙ্গল সহকারী বন সংরক্ষক (বণ্যপ্রানী) তবিবুর রহমান, বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সিতেশ রঞ্জন দেব, সিলেট বিভাগের সাবেক স্বাস্থ্য পরিচালক ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক ডা. হরিপদ রায়, ইঞ্জিনিয়ার গৌতম কুমার দেব, বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের পরিচালক সজল দেব সহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

শ্রীমঙ্গল বণ্যপ্রানী ফাউন্ডেশনের পরিচালক সজল জানান, গত ৩১ ডিসেম্বর রাতে শ্রীমঙ্গল উপজেলার জাগছড়া চা-বাগানের ফাঁড়ি বাগান গিলাছড়া চা-বাগান এলাকায় চা-শ্রমিকদের হাতে ব্যাম্বু ট্রিনকেট স্নেক ধরা পড়ে। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে সেদিন রাতেই বন্য প্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের লোকজন সাপটিকে শ্রমিকদের কাছ থেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন।

শ্রীমঙ্গল সহকারী বন সংরক্ষক তবিবুর রহমান জানান, অবমুক্ত করা গন্ধগকূলটি গত বুধবার রাত ১২টার দিকে কমলগঞ্জের বালিগাও চা বাগান থেকে উদ্ধার করে বন বিভাগ। পরে লাউয়াছড়া রেসকিউ সেন্টারে রেখে লাউয়াছড়ায় অবমুক্ত করা হয়।

Previous articleনিউজিল্যান্ডের মাটিতে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক টেস্ট জয়
Next articleনিউজিল্যান্ড বধে র‍্যাঙ্কিংয়ে এক লাফে পাঁচে বাংলাদেশ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।