বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বগুড়ার শেরপুর উপজেলা থেকে ১২০০ বস্তা সরকারি ডিএপি সারসহ ছয়জনকে আটক করেছে র‌্যাব।

গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার বিশাপুর ইউনিয়নের (চৌমহনী বাজার) বামিহাল এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

শুক্রবার দুপুরে র‌্যাবের নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: ফরহাদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানালেন, আটককৃতরাসহ মোট সাতজনের বিরুদ্ধে শেরপুর থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

যাদের নামে মামলা করা হয়েছে, তারা হলেন, বগুড়ার কাহালু উপজেলার গুরবিশা গ্রামের ট্রাকচালক মো: সবুর হোসেন (২৮), মো: রুহুল আমিন (৩০), বগুড়া সদরের মালতি নগরের মো: তানবির হোসেন (২৩), তাদের সহকারী মো: ইমরান হোসেন (২৩), মো: রাকিব হোসেন (১৯), মো: বিশু (২৩) ও তুলা মিয়া (৩৮)। তবে সাত নম্বর আসামি পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

জানা যায়, আসামিরা নাটোর থেকে কয়েকটি ট্রাকে করে ডিএপির ১২০০ বস্তা সরকারি সার পাচার করে বগুড়ার দিকে নিয়ে যাচ্ছিল। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বগুড়া জেলার শেরপুর উপজেলার বিশালপুর ইউনিয়নের (চৌমহনী বাজার) বামিহালি এলাকা থেকে র‌্যাব তাদেরকে আটক করে এবং এ সময় তিনটি ট্রাকভর্তি ১২০০ বস্তা ডিএপি সার জব্দ করা হয়।

নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: ফরহাদ হোসেন জানান, গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে শেরপুর থানায় এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। আসামিরা দীর্ঘদিন ধরে সার পাচারের সাথে জড়িত বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন।

এ বিষয়ে শেরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শহিদুল ইসলাম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘শেরপুর থানায় সাতজনের নামে মামলা হয়েছে। আটককৃতদের জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।’

Previous articleকলাপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ
Next articleউল্লাপাড়া প্রেসক্লাবের ৫ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।