ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: চাঁপাইনবাবগঞ্জে নির্বাচনে পরাজিত ইউপি সদস্য প্রার্থীর সমর্থকরা পুলিশের উপর হামলা চালানোর ঘটনায় ৩৮৫ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে। শুক্রবার (০৭ জানুয়ারী) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানাশ পুলিশের পক্ষ থেকে মামলাটি দায়ের করা হয়।

চাঁপাইনাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) মোজাফফর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সদর থানার এসআই ওসমান আলী বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন। মামলায় ১৩৫ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনানমা আরো ২৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় শুক্রবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত ১৫ জনকে আটক হয়েছে। আটককৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামীদেরকে আটক করতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।

গত বুধবার (০৫ জানুয়ারী) অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে জেলার সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন শরিয়ত আলী। তার কাছে পরাজিত হন বর্তমান ইউপি সদস্য মনিরুল ইসলাম মনি, আব্দুল কুদ্দুস সেরাতাল, আনারুল ইসলাম, আবু বাক্কার ও সাদিকুল ইসলাম। কিন্তু পরাজয় মেনে নিতে না পেরে পরাজিত প্রার্থী মনিরুল ইসলাম মনি ও আব্দুল কুদ্দুস সেরাতাল এক হয়ে তাদের শতাধিক সমর্থকসহ লাঠিসোটা নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে শরিয়ত আলীর বাড়িতে হামলা চালাতে যায়।

এ খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত শরিয়ত আলীর বাড়িতে হামলার আগেই হোসেনডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলে তারা ইটপাটকেল ও লাঠিসোটা নিয়ে পুলিশের উপর হামলা করে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশের উপর হামলায় মোট ৫ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় তিনজনকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মামলার বাদি হামলায় গুরুতর আহত সদর মডেল থানার এসআই ওসমান আলী।

Previous articleসাংবাদিক সোহেলের উপর সন্ত্রাসী হামলায় শ্রীমঙ্গলে প্রতিবাদ সমাবেশ
Next articleতাহিরপুরে তৃতীয় বারের মতো দলীয় প্রতীক নৌকা পেলেন বিশ্বজিৎ সরকার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।