আবুল কালাম আজাদ: টাঙ্গাইলের বাসাইলে হেলাল মিয়া (৬৫) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয়দের দাবি তিনি স্ট্রোক করে মারা গেছেন। পরিবারের অভিযোগ নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আহত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (৮ জানুয়ারি) ভোরে উপজেলার ফুলকী ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের বালিয়া উত্তরপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।নিহত হেলাল মিয়া ওই গ্রামের আতোয়ার রহমানের ছেলে। নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানাগেছে,গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে উপজেলার ফুলকী ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের বালিয়া উত্তরপাড়ার ইউপি সদস্য পদে জামাল উদ্দিন হেরে যায়। নির্বাচনে হেরে যাওয়ার ক্ষোভ ও ভোট না দেওয়ায় অভিযোগ এনে ওইদিন রাতে জামাল উদ্দিনের লোকজন বালিয়া উত্তরপাড়ার লাভলু ও হেলাল মিয়াসহ একাধিক বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে।এসময় হেলাল মিয়ার স্ত্রী মিনু বেগম তাকে নিয়ে পাশের একটি ঘরে আশ্রয় নেন। এসময় মিনু বেগমকে মারধর করা হয়। পরে ঘটনার তিনদিন পর শনিবার ভোরে হেলাল মিয়া বাড়িতেই মারা যান।

নিহত হেলাল মিয়ার ছেলে মামুন মিয়া জানান,নির্বাচনে হেরে জামাল উদ্দিনের লোকজন তাদের বাড়িতে হামলা করে। এসময় তার মা ও বাবাকে মারধর করা হয়।মারধরের কারণে তার বাবা মারা গেছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য ( সদ্য সাবেক) নূরুল ইসলাম বলেন,্#৩৯;ভোরে তিনি মারা গেছেন। শুনেছি তিনি আগে থেকেই অসুস্থ ছিলেন। তবে নির্বাচনি সহিংসতায় কয়েকটি বাড়িতে ভাংচুর চালিয়েছে পরাজিত প্রার্থীর লোকজন। সাবেক ইউপি সদস্য অভিযুক্ত জামাল উদ্দিন জানান,হেলাল উদ্দিন আমার বন্ধু ছিল,তাকে মারবো কেন?আমার লোকজন তার বাড়িতে হামলা বা তাকে মারধর করেনি। বাসাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুর রশিদ জানান,বাড়ি-ঘরে হামলার ঘটনায় শুক্রবার মামলা হয়েছে। মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ ওঠায় নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Previous articleরংপুরে শতরঞ্জি পল্লীতে আগুন, ৫০টি তাঁত মেশিন পুড়ে ছাই
Next articleচাঁপাইনবাবগঞ্জে নির্বাচন পরবর্তী হামলা: গ্রেফতার আতঙ্কে পুরুষশূন্য গ্রাম
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।