আহম্মদ কবির: সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে দুই মোটরসাইকেল চালকের ঝগড়ার ঘটনায় আহত ছেলে কুতুবউদ্দিন (৩৫)এর রক্তাক্ত শরীর দেখে বাবা নুর উদ্দিন(৭০) হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন।

বুধবার (০২মার্চ)সকাল আনুমানিক ১১টার সময় উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয়রা জানান কুতুবউদ্দিন উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের খলিসাজুড়ি গ্রামের নিহত নুর উদ্দিন এর ছেলে এবং একই ইউনিয়নের বাদারঘর গ্রামের আসগর আলীর ছেলে মিষ্টারনুর তারা দুজনেই মোটরসাইকেল চালক,গতকাল উপজেলার বানিজ্য কেন্দ্র বাদাঘাট বাজারে মিষ্টারনুর ও অন্য মোটরসাইকেল চালকের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে ঝগড়া হলে,কুতুবউদ্দিনসহ কয়েকজন এগিয়ে এসে তাদের ঝগড়া নিষ্পত্তি করে,যে যার কাজে চলে যায়।আজ বুধবার সকালে উপজেলার নতুন বাজারে কুতুবউদ্দিন ও মিষ্টারনুর এর দেখা হওয়া মাত্রই মিষ্টারনুর কুতুবউদ্দিন কে লাঠি দিয়ে আঘাত করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে পালিয়ে যায়।খবর পেয়ে আহতের বাবা নুর উদ্দিন ঘটনাস্থলে গিয়ে ছেলের রক্তাক্ত শরীর দেখে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। তাকে স্থানীয় পল্লি চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করা হয়।

পরে স্থানীয়রা আহত কুতুবউদ্দিন কে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য তাহিরপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।

উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন আমিও শুনেছি ছেলের রক্তাক্ত শরীর দেখে নিহত নুর উদ্দিন এর মৃত্যু হয়।

এ ব্যাপারে তাহিরপুর থানা অফিসার ইন-চার্জ ওসি মোঃ আব্দুল লতিফ তরফদার বলেন এ ব্যাপারে নিহতের স্বজন আসাদ মনি ফোন করে বিষয়টি অবগত করেছে, কিন্তু এখন পর্যন্ত লিখিত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি,আসলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Previous articleকলাপাড়া পৌরশহরের চৌরাস্তার মাছ বাজারে প্রকাশ্যে চাঁদাবাজী
Next articleবাংলাদেশকে অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার আরও ১০ লাখ ডোজ দিলো যুক্তরাজ্য
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।