বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর একটি বাসা থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় এক যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগে পাঠানো হয়েছে। যুবকের বিশেষ অঙ্গ কাটা ছিল। অন্যদিকে তার পাশে পড়ে থাকা এক তরুণীর লাশও উদ্ধার করেছে পুলিশ।

স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে, ওই যুবক জাহাঙ্গীর আলম (৩০) ও মৃত শাহীনা আক্তার (২৪) পরকীয়ার সম্পর্কে জড়িত ছিল। তাদের দু’জনেরই সংসার ও সন্তানাদি রয়েছে। তবে হতাহতের এ ঘটনার কারণ জানা যায়নি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে যাত্রাবাড়ীর মাতুয়াইলের কোনাপাড়া এলাকার একটি ভাড়াটিয়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর অবস্থায় জাহাঙ্গীরকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, জাহাঙ্গীর শাহীনা দু’জনই যাত্রাবাড়ীর একটি পোশাক কারখানার কর্মী। কর্মক্ষেত্রে শাহীনা আক্তারের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। পরে তারা প্রেমের সম্পর্কে জড়ান। তাদের দু’জনেরই আলাদা আলাদা সংসার আছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে তারা দু’জন তাদের পরিচিত এক ব্যক্তির বাসায় যান।

সেখানেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে জাহাঙ্গীরের গোপনাঙ্গ কেটে দেন শাহীনা। এ সময় জাহাঙ্গীর তার গলা চেপে ধরে ধাক্কা দেন। এতে শাহীনার মাথা দেয়ালের সাথে লাগে। মাথায় আঘাত পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান।

জাহাঙ্গীরের দাবি, পরিচিত ব্যক্তির বাসায় যাওয়ার পর একটি কক্ষে আটকে তার গোপনাঙ্গ কেটে দেয়া হয়।

যাত্রাবাড়ী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আয়ান মাহমুদ বলেন, ঘটনার পর খবর পেয়ে জাহাঙ্গীরকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অস্ত্রোপচার চলছে। আর শাহীনার লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে রাখা হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তা আয়ান মাহমুদ জানান, জাহাঙ্গীর ও শাহীনার উভয়েরই স্বামী-স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। তারা পরকীয়ায় লিপ্ত ছিলেন। তবে কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে, সেটি প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি। শাহীনা তাৎক্ষণিকভাবে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন নাকি পরিকল্পনা করে ঘটিয়েছেন, সেটি জানা যায়নি।

Previous articleআম পাড়ার বিরোধে প্রবাসীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা
Next articleবিশ্বের অনেক দেশে সয়াবিন তেলের দাম দ্বিগুণেরও বেশি বেড়েছে: ওবায়দুল কাদের
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।