ওসমান গনি: কুমিল্লার চান্দিনায় সাবেক প্রতিমন্ত্রী ড. রেদোয়ান আহমেদ এর গুলিতে আহত দুই কর্মীর চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত।

বুধবার (১১ মে) সকালে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মাহমুদুল হাসান জনি ও নাজমুল হাসান নাঈম নামের ওই দুই কর্মীকে দেখতে গিয়ে এ ঘোষণা দেন তিনি।

এসময় তাদের চিকিৎসার যাবতীয় খোঁজ খবর নিয়ে পরিবারের হাতে চিকিৎসা ব্যয় প্রদান করেন স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত খ্যাতনামা চিকিৎসক অধ্যাপক প্রাণ গোপাল দত্ত।

পরে তিনি চান্দিনায় এসে নেতা-কর্মী ও সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে আহত জনি ও নাঈম এর সকল চিকিৎসা ব্যয় বহনের ঘোষণা দেন।

এসময় তিনি বলেন, ‘ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতা-কর্মীদের উপর গুলিবর্ষণের ঘটনাটি একটি পরিকল্পিত হামলা। চান্দিনায় এখনও খুনি রশিদ এর উত্তরসূরীরা রয়ে গেছে। খুনি রশিদরা জাতির পিতার স্ব-পরিবারে খুন করে রক্তের বন্যা বইয়ে দিয়েছে। রেদোয়ান আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের খুন করতে অমানবিক ভাবে গুলি চালিয়ে রক্ত ঝড়িয়েছে। চান্দিনার মাটিতে রাজনীতি করার কোন অধিকার তার নেই।’

প্রসঙ্গত, সোমবার (৯ মে) বিকাল ৪টায় চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ কলেজ ক্যাম্পাস-২ মমতাজ আহমেদ ভবন এ এইকই স্থানে কলেজ ছাত্রলীগ ও পৌর এলডিপি পাল্টাপাল্টি ঈদপুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে গন্ডগোলের এক পর্যায়ে রেদোয়ান আহমেদ গাড়ির জানালা খুলে পরপর দুইটি গুলি করেন। এতে ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের দুই কর্মী গুলিবিদ্ধ হয়। এ ঘটনায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা কাজী আখলাকুর রহমান জুয়েল বাদী হয়ে ১৫জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় রেদোয়ান আহমেদসহ চারজনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

Previous articleসোনারগাঁওয়ে সংস্কার কাজের সময় গ্যাস পাইপ লিকেজ, কাভার্ডভ্যানে আগুন
Next articleসাংসদকে অনুষ্ঠানে দাওয়াত না দেওয়ায় জয়পুরহাটের ডিসির অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।