শফিকুল ইসলাম: জয়পুরহাটে প্রকাশ্য দিবালোকে ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট শাখা ব্যবস্থাপকের কাছ থেকে ১৩ লাখ টাকা ছিনতাইকালে ধারালো অস্ত্রসহ তিন ছিনতাইকারীকে আটক করেছে পুলিশ। জয়পুরহাট সদর উপজেলার চান্দা ব্রিজ এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

সোমবার দুপুরে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর জাহান। আটক ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যরা হলেন-জয়পুরহাট পৌর শহরের আমতলী মহল্লার মজিবর রহমানের ছেলে মিন্টু (৪০), ধানমন্ডি মহল্লার রফিকুল ইসলামের ছেলে জোহা (৩১), হাজী মাদ্রাসা পাড়া মহল্লার আফজাল হোসেনের ছেলে সুমন (৩৪)।

পুলিশ জানায়, সকালে ইসলামী ব্যাংকের জামালগঞ্জ এজেন্ট শাখা ব্যবস্থাপক আবুল হোসেন ও তার সহকারী জয়পুরহাট শহরের ইসলামী ব্যাংক শাখা থেকে ১৩ লাখ টাকা নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে জামালগঞ্জ বাজারে যাচ্ছিলেন। তারা জয়পুরহাট-আক্কেলপুর সড়কের চান্দা ব্রীজ এলাকায় পৌঁছলে পেছন থেকে দুই মোটরসাইকেলে আসা ছয়জন ধারালো ছুরি দেখিয়ে তাদের পথরোধ করেন। এরপর চোখে মরিচের গুড়া ছিটিয়ে টাকা ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। সে সময় তার চিৎকারে রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী লোকজন দৌড়ে এসে দুজনকে আটক করে গণধোলাই দেয় এবং পুলিশে খবর দেয়।

পুলিশ ওই দুজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের পর আরও একজনসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তার তিনজনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর ছিনতাইয়ের চেষ্টায় উদ্ধার ১৩ লাখ টাকা এজেন্ট ব্যাংকের লোকজন আদালতের মাধ্যমে নিতে পারবেন। আটক সুমন এজেন্ট ব্যাংক এর গাড়ি চালক। সে আগে থেকেই ছিনতাইকারীদের সাথে যোগাযোগ ও পরিকল্পনা করে এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

আটক ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে জয়পুরহাট জেলার বিভিন্ন সড়কে নিয়মিত ছিনতাই করে আসছিলেন বলেও জানান ওসি।

Previous articleসোনারগাঁওয়ে ৫০ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২
Next articleরংপুর সিটি কর্পোরেশনের সচিবের পদটি ৫ মাস ধরে শূন্য
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।