আব্দুদ দাইন: পাবনার সাঁথিয়ায় সরকারি খাস জমি জালিয়াতকারী চক্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হওয়ায় মূল হোতাকে গ্রেফতার করেছে সাঁথিয়া থানা পুলিশ। জানা গেছে,সাঁথিয়া উপজেলার গৌরীগ্রাম মৌজার ‘খ’ তফশীলভুক্ত প্রায় সাড়ে ৫২বিঘা জমি কয়েকজন ভূমিদস্যু জাল দলিল ও ভূয়া মিস কেস এর রায় জালিয়াতি করে নামজারি পূর্বক আত্মসাৎ ও দখলের অপচেষ্টা করলে সাঁথিয়া উপজেলার গৌরিগ্রাম ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা মোকাররম হোসেন মামলা দায়ের করেন।

এই অপকর্মের অন্যতম কুশীলব ঘুঘুদহ গ্রামের আব্দুল জব্বার প্রাং এর ছেলে মোঃ আবুল বাসারকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। উক্ত জমির মূল মালিক ছিলেন রাজেন্দ্র চৌধুরী (বাবা-মাধব চৌধুরী)। যিনি ১৯৪৭ সালে ভারত-পাকিস্তান বিভক্তির আগেই ভারতে চলে যান। তার পরিত্যাক্ত জমি ডিএস রেকর্ডের সময় খাস খতিয়ান ভুক্ত হয়। ১৭ দশমিক ৩৬ একর জমি সাঁথিয়া ভূমি অফিসের কতিপয় অসৎ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহায়তায় ২০২১- ’২২ সালে ৭টি হিসাব (২৮৫৩/২১-’২২), (৫৭৩৪/২১-’২১), (৫৭৩৩/২১-’২২), (৫৭৩৫/২১-’২২), (৫৭৩৬/২১-’২২), (৫৭৩৭/২১- ’২২) এবং (৬২০৬/২১-’২২) ঘুঘুদহ গ্রামের আব্দুল জব্বার প্রাং এর ছেলে মোঃ আবুল বাসার,মোঃ আলাউদ্দিন প্রাঃ, পিতাঃ মৃত নুর আলী গ্রামঃ বিলমহিষাচর,মোঃ গোলাম মোস্তফা, পিতা মৃত আঃ হাকিম গ্রামঃ সোনাতলা, মোঃ বকুল হোসেন,পিতা মৃত মোজাহার হোসেন মোজাই গ্রামঃ পিপুলিয়া, মোঃ আব্দুল লতিফ পিতাঃ মৃত আহের আলী গ্রামঃ ইকরজানা উপজেলা সাঁথিয়া ও মোঃ আমিরুল ইসলাম বাবু, পিতাঃ মৃত জানু সরদার গ্রামঃ কৃষ্ণপুর পাবনা,নামজারি বা খারিজ করে নেয় নিজেদের নামে।

ধারণা করা হচ্ছে মোটা অংকের টাকা উৎকোচের বিনিময়ে এই সরকারি খাস জমি হাতিয়ে নেওয়ার সুযোগ করে দেয় সাঁথিয়া ভূমি অফিসের কতিপয় কর্মকর্তা-কর্মচারী। জানা গেছে, সাঁথিয়া ভূমি অফিসে এভাবে জাল দলিল ও ভূয়া নামজারি করে বেশ কিছু সরকারি সম্পত্তি (‘ক’ এবং ‘খ’ তফশীলভুক্ত) বেদখল করেছে ভূমিদস্যু চক্র । সাঁথিয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার(ভূমি) মোহাঃ মনিরুজ্জামান জানান,দ’ুজন সাংবাদিক ভুমিদস্যুদের পক্ষে কাজ করার জন্য সুপারিশ করেন। তাদের সুপারিশ সরকারি বিধি বহির্ভূত হওয়ায় তা রক্ষা না করায় ইতোমধ্যে তারা তাকে বিতর্কিত করার জন্য কিছু মনগড়া মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করেছেন। তিনি জানান,এই অপকর্মের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ভূমি অফিসের কয়েকজন কর্মচারির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বিভাগের উর্ধতন কর্মকর্তাকে চিঠি দেয়া হয়েছে। জালিয়াতি কাজের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ৩০ জুন মামল দায়ের হলে পুলিশ শুক্রবার অভিযুক্ত আসামী আবুল বাসারকে গ্রেফতারের পর অপর আসামীরা গ্রেফতার এড়াতে গা ঢাকা দিয়েছে। সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)ভারপ্রাপ্ত আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম জানান, পুলিশী তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

Previous articleজয়পুরহাটে মাসব্যাপি তাঁতবস্ত্র, হস্ত ও কুটির শিল্প মেলার উদ্বোধন
Next articleরংপুরে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।