আবুল কালাম আজাদ: টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে মোবাইলে কথা বলতে বলতে রেললাইন পার হওয়ার সময় ট্রেনে কাটা পড়ে পা হারান জাবের খান (২৪) নামে এক প্রকৌশলী। হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়।

গত শনিবার ২জুলাই রাতে ঢাকা সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত জাবের খান কালিহাতী উপজেলার পাইকড়া ইউনিয়নের খরশিলা আইয়ুব খানের ছেলে।

বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর পূর্ব পাড়ে নির্মাণাধীন রেল লাইনের কাজ শেষে মোবাইলে কথা বলতে বলতে রেল লাইন পার হওয়ার সময় টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার বিয়ারামারুয়া এলাকায় ট্রেনে কাটা পড়ে পা হারানো গুরুতর আহত অবস্থায় তমা কনস্ট্রাকশনের সাইড প্রকৌশলী জাবের খানকে সাভার এনাম মেডিকেল হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে মৃত্যু হয়।

শনিবার বিকেল ৬ টার দিকে কালিহাতী উপজেলার বিয়ারামারুয়া এলাকায় জামালপুরগামী ধলেশ্বরী এক্সপ্রেস ট্রেনে কাটা পড়ে পা বিচ্ছিন্ন হয়ে গুরুতর আহত হন। নিহত জাবের খান তমা কনস্ট্রাকশনের সাইড ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করতেন।

রেললাইনের কর্মীরা জানান, প্রকৌশলী জাবের খান বিকালে নির্মাণাধীন নতুন রেললাইনের কাজ শেষে মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে রেললাইন পার হচ্ছিলেন। এ সময় বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব রেলস্টেশন থেকে ছেড়ে আসা জামালপুরগামী ধলেশ্বরী এক্সপ্রেস ট্রেনটি বিয়ারামারুয়া এলাকায় পৌঁছালে জাবেরকে ধাক্কা দেয়।

এতে তার পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় এবং মাথায় গুরুতর আঘাত পান। তাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার্ড করেন। ঢাকা সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়।

টাঙ্গাইল ঘারিন্দা রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই সাকলাইন তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Previous articleভারত ভ্রমণে নতুন নিয়ম, বিপাকে বাংলাদেশি যাত্রীরা
Next articleউল্লাপাড়ায় ভুটানী জাতের ষাড় আকারে ছোটো হলেও দাম বেশী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।