ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়ন পরিষদে বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ইউনিয়নবাসী। শুক্রবার (১৫ জুলাই) সকালে জেলা শহরের গাবতলা মোড়ে এই মানববন্ধন হয়। মানববন্ধনে ইউনিয়নের বিভিন্ন অসহায় মানুষকে হয়রানি ও হুমকি দেয়ার অভিযোগ করা হয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, শাহজাহানপুর ইউনিয়ন পরিষদে বিভিন্ন সেবা নিতে গিয়ে নানা হয়রানির শিকার হতে হয় ইউনিয়নবাসীকে। ৩০০-৫০০ টাকা ছাড়া মেলেনা জন্ম নিবন্ধন ও ওয়ারিশন সনদপত্র। এর প্রতিবাদ করতে গেলেই নানারকম ভয়ভীতি, হুমকি দেয়া হয় সেবাগ্রহীতাদের। এমনকি ইদের আগে দেয়া ভিজিএফ-এর চাল বিতরনেও দূর্নীতি করেন ইউপি চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম ও তার লোকজন। ১০ কেজি চাল দেয়ার কথা থাকলেও সেখানে দেয়া হয় ৭ থেকে সাড়ে ৭ কেজি।

মানববন্ধনে এসব অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিকার চান শাহজাহানপুর ইউনিয়নবাসী। এছাড়াও মানববন্ধনে এসব অভিযোগের সুষ্ঠ তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করেন বক্তারা।

মানববন্ধনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা সাব রেজিস্টার অফিসের দলিল লেখক মো. কামরুজ্জামান বলেন, গতমাসে এক আত্মীয়ের ওয়ারিশন সনদপত্র নিতে শাহাজাহানপুর ইউনিয়ন পরিষদে যায়। এসময় এর বিনিময়ে ইউপি সচিব আমার কাছে প্রথমে ৫০০ টাকা পরে ৩০০ টাকা দাবি করেন। ইউপি সচিব জানান, চেয়ারম্যান বিপুল পরিমাণ টাকা খরচ করে নির্বাচিত হয়েছেন, তাই টাকা ছাড়া সনদ পাওয়া যাবে না। এর প্রতিবাদ করলে চেয়রাম্যানের লোকজন আমাকে নানারকম ভয়ভীতি হুমকি দেখায়। পরে আমাকে তার লোকজন বেধড়ক মারধর করে।

শাহজাহানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম বলেন, ইউনিয়ন পরিষদে আমরা এর আগে কোনদিন এমন অনিয়ম-দুর্নীতি দেখিনি। সরকার ইউনিয়ন পরিষদের সেবা সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে পৌঁছে দিতে সরকার নানা উদ্যোগ নিয়েছে। অথআ সাধারণ মানুষজন তাদের সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। কেউ প্রতিবাদ করলেই তার উপর হুমকি-ধামকি ও ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। আমরা এ থেকে পরিত্রাণ চাই। এমন অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ না হলে আগামীতে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

শাহজাহানপুর ইউনিয়নে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ডিলার সিহাব আলী বলেন, ভিজিএফ-এর চাল বিতরণে কার্ড সঠিকভাবে বিতরণ করা হয়নি। শুধুমাত্র ইউপি চেয়ারম্যান তরিকুলের লোকজন এই কার্ড পেয়েছে। এমনকি ওজনেও কম ছিল ১০ কেজির চালে।

তবে সকল অভিযোগ অস্বীকার করেছেন শাহজাহানপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. তরিকুল ইসলাম। মুঠোফোনে তিনি বলেন, দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে নিয়ম মেনেই সুষ্ঠভাবে ইউনিয়ন পরিষদ পরিচালনা করছি। জন্ম নিবন্ধন ও ওয়ারিশন সনদপত্র প্রদানে অতিরিক্ত কোন অর্থ নেয়া হয় না। সরকার নির্ধারিত ফি নিয়েই এসব সেবা দেয়া হয়।

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, শাহজাহানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. শাহজামাল, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম আনু মাস্টার, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক শামিম রেজা মিঠু, শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজ শাখা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক মো. রাসেলসহ শাহজাহানপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন স্তরের জনসাধারণ।

Previous articleঢাবি’র অধিভুক্ত সরকারি ৭ কলেজে ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১২ আগস্ট
Next articleপাঁচবিবিতে ডিবির অভিযান ২০ কেজি গাঁজাসহ আটক ২
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।