ছবিটি রবিবার উপজেলার গোবিন্দাসী হাট থেকে তুলেছেন আব্দুল লতিফ তালুকদার

আব্দুল লতিফ তালুকদার: দেশের রপ্তানীজাত পন্য সোনালী আশঁ পাটের সুদিন ফিরেছে। চাষে আগ্রহ বাড়ছে কৃষকদের। পাট দিয়ে দেশে নতুন নতুন পাটজাত পন্য তৈরি করায় দিনদিন বাড়ছে পাটের চাহিদা। ফলে কৃষক তাদের কাঙ্খিত দামও পাচ্ছে। গড়ে উঠছে নতুন নতুন শিল্পকারখানা তেমনি সৃষ্টি হচ্ছে নতুন নতুন কর্মসংস্থান।

এবছর টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে বন্যায় কৃষি খাতে প্রায় ১০ কোটি টাকার বিভিন্ন ফসল নষ্ট হলেও পাটের ক্ষেত্রে ক্ষতির পরিমান কম। তাই উপজেলার পাটচাষিরা পাট চাষ করে অনেকটাই লাভবান। ২০২১-২২ অর্থ বছরে উপজেলায় মোট ৪ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের পাট চাষ হয়েছে। যা লক্ষমাত্রা ছিল ৪ হাজার ১০০ হেক্টর। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৪০০ হেক্টর বেশি জমিতে পাট চাষ হয়েছে বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ। দেশি জাতের ৫’শ হেক্টর, তোষা ৩ হাজার ৪’শ হেক্টর, কেনাফ ২’শ ও মেস্তা ৫ হেক্টরসহ অন্যান্য আধুনিক ও উন্নতজাতের পাট চাষ হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলার বৃহত্তম গোবিন্দাসী হাটে ভোর থেকেই জমে উঠেছে পাটের হাট। সপ্তাহে রবি ও বৃহস্পতিবার হাট বসে। প্রতিহাটে শতশত মণ পাট বিক্রি হচ্ছে। হাটটি যমুনা নদীর সংলগ্ন হওয়ায় চরাঞ্চলের চাষিরা যাতায়াতের সুবিধা পাচ্ছে। উপজেলার রাউৎবাড়ি গ্রামের পাট চাষী আনোয়ার বলেন, এবার পাটের আবাদ ভালো হয়েছে, দামও ভালো পেয়েছি। প্রতি মণ পাট বিক্রি করেছি ৩ হাজার টাকা করে।

গোবিন্দাসী হাটে পাট বিক্রেতা গোবিন্দপুরের কৃষক মাসুদ বলেন, এবছর যমুনার চরাঞ্চলে বন্যায় পাট চাষে কিছুটা ক্ষতি হলেও দাম ভালো পেয়েছি। প্রতিমণ ৩ হাজার ২’শ টাকা দরে বিক্রি করেছি। এবছর আমি ১০ বিঘা জমিতে পাট চাষ করেছি। পানি কমে যাওয়ায় পাট জাগ দেওয়ায় কিছুটা সমস্যা হয়েছে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির বলেন, এবছর পাটের আবাদ লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। কৃষক তাদের পাট আবাদে কাঙ্খিত দাম পেয়েছে। এখনো পাট কর্তন ও মাড়াই, বিক্রি চলছে। প্রতিমণ পাট স্তর ভেধে ৩ থেকে সাড়ে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। প্রতি বিঘায় কৃষকের খরচ হচ্ছে ৭ থেকে ৮ হাজার টাকা। প্রতি বিঘায় পাট আবাদ হচ্ছে ১০ থেকে ১১ মন। অর্থাৎ তিন মাসে কৃষকের বিঘা প্রতি আয় হচ্ছে ২০ থেকে ২২ হাজার টাকা। এছাড়া আমাদের কৃষি বিভাগ থেকে বিনামূল্যে বীজ, সার, কীটনাশক দিয়েছি।

Previous articleকাশিনাথপুরে নারীকে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা, আসামির মৃত্যুদণ্ড
Next articleসন্ত্রাসী কার্যক্রম বন্ধে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যৌথ অভিযান, থাকবে সেনাবাহিনী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।