বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ফরিদপুরের সালথায় বিয়ের প্রলোভনে তালাকপ্রাপ্তা এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় জাকির হোসেন লিটন (৪৫) নামর এক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সালথা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: শেখ সাদিক জানান, সালথা থানায় দায়েরকৃত ওই মামলার আসামি লিটনকে ঢাকার রমনা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতার লিটন সালথা উপজেলার মাঝারদিয়া ইউনিয়নের কাগদী স্বজনকান্দা গ্রামের মো: হারুন শেখের ছেলে। কাগদী বাজারে তার একটি টিনের দোকান রয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সালথা থানার এসআই আনিসুর রহমান জানান, গত ২২ আগস্ট একজন তালাকপ্রাপ্তা নারী ধর্ষণের অভিযাগে জাকির হোসেন লিটনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর থেকে জাকির পালাতক ছিলেন। প্রযুক্তির সহায়তায় পুলিশ ঢাকার রমনা থানা এলাকা থেকে মঙ্গলবার রাতে তাকে গ্রেফতার করে। বুধবার বিকেলে তাকে আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাকে জেলহাজতে পাঠান।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২৮ বছর বয়সী বিবাহিত ওই নারীর তালাক হওয়ার পর জাকির হোসেন লিটনের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। জাকির তাকে বিয়ের প্রলাভন দেখিয়েছিলেন এবং মাঝেমধ্যেই তাকে নিয়ে বাইরে ঘুরতে নিয়ে যেতেন।

তিনি অভিযোগ করেন, গত ১৫ আগস্ট সকাল ১১টার দিকে সালথা বাজারে কেনাকাটা করার জন্য বাড়ি থেকে বের হলে পথে জাকিরের সাথে দেখা হয়। এ সময় তাকে ফুঁসলিয়ে কাগদী গ্রামে একটি দোতলা বাড়িতে নিয়ে জাকির তাকে জোর করে ধর্ষণ করেন। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে জাকির কৌশলে তাকে ফেলে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা তাকে আহতাবস্থায় উদ্ধার করে ফরিদপুরের বিএসএমএমসি হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করেন।

Previous articleচাঁপাইনবাবগঞ্জে র‍্যাব-৫ এর অভিযানে ৫ প্রতারক গ্রেফতার
Next articleসোনারগাঁওয়ে ছাত্রলীগ নেতাসহ দুই মাদক কারবারী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।