বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুর ব্রিজের মুখে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে অটোচালকসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন। আহত দু’জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

আজ রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন অটোযাত্রী নুরুদ্দিন, মোঃ হানিফ (৩০), মোঃ মামুন (৩১), জামাল ও পোশাক শ্রমিক অজ্ঞাত পুরুষ সনাতন ধর্ম (৩৬)।

নিহত হানিফের গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জে। তিনি বিল্লাল হোসেনের ছেলে। যাত্রাবাড়ী এলাকায় থাকতেন। এক ছেলে ও এক মেয়ের বাবা ছিলেন।

মৃত মামুনের গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠি সদর জেলায়। বাবার নাম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন। বর্তমানে আদমজী এলাকায় থাকতেন। তিন ভাইয়ের মধ্যে সে ছিল সবার বড়।

দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থলেই নুরুদ্দিন নামে একজন নিহত হন। গুরুতর আহত চারজনকে সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে এলে চারজনকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত মামুনের ছোট ভাই মোঃ সুমন জানান, আমার ভাই আদমজী একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। আজ রোববার সে কাজ শেষে সিএনজিযোগে আমার বাসায় আসার পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, কাঁচপুর থেকে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা ও মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে ঢাকা মেডিক্যালের চারজনকে নিয়ে এলে সবাই মারা যান। লাশ মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবগত করা হয়েছে।

কাচপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নবীর হোসেন জানান, সকালের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাচপুর ব্রিজের ঢাকামুখী লেনে একটি অটোরিকশা উল্টোপথে যাচ্ছিল। এ সময় ঢাকামুখী একটি হাইস মাইক্রোবাসের সাথে অটোরিকশার সংঘর্ষ হয়। অটোরিকশার এক যাত্রী মদনপুরের আল-বারাকা হাসপাতালে মারা যান। গুরুতর আহত চারজনকে ঢাকা মেডিক্যালে পাঠানো হয়। সেখানে চারজনের মৃত্যু হয়।

Previous articleকুয়াকাটায় জেলের জালে ধরা পড়লো ‘লংফিন ব্যাট ফিস’
Next articleসোনাইমুড়ীতে নিখোঁজ তরুণীর মরদেহ মিলল ডোবায়
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।