সাহারুল হক সাচ্চু: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার চরবেড়ায় জপঝপিয়া ( গাঢ়দহ ) নদীতে ব্রীজ না থাকা ছয় গ্রামবাসীদের কাছে দুর্ভোগের হয়ে আছে৷ সেখানকার ঘাটে একটি বাশের চরাটের সাকো বেয়ে সবাইকে এপার ওপার হতে হয়৷ চরবেড়ায় একেবারে নদী পাড়ের বিদ্যালয় দু’টির বহু সংখ্যক শিক্ষার্থী নদীর ওপারের গ্রামগুলোর বসতি৷ উপজেলার সলঙ্গা ইউনিয়নের চরবেড়া গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া জপঝপিয়া ( গাঢ়দহ ) নদীতে সারা বছরই পানি থাকে৷ এর মধ্যে বর্ষাকালসহ আরো ক’মাস নদীটি পানিতে ভরপুর থাকে বলে জানা গেছে৷

নদীর পশ্চিম প্রান্তের গ্রামগুলো হলো চরবেড়া, গোজা , সাতটিকরী ৷ এছাড়া একেবারে নদী পাড়ে পাশাপাশি অবস্থানে চরবেড়া উচ্চ বিদ্যালয় ও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে৷ আর নদীর পূর্ব প্রান্তের গ্রামগুলো হলো ছোটো গোজা, চর গোজা, দিয়ারপাড়া , ভরমোহনী , মানিকদিয়ার ৷ সরেজমিনে গিয়ে আরো জানা গেছে সেই আদিকাল থেকে চরবেড়ায় খেয়া ঘাটে কোনো কোনো বছর নৌকায় পারাপার নয়তো বাশের চরাটের সাকোয় নদী পারাপার ব্যবস্থা থাকছে৷ গত কয়েক বছর হলো বাশের চরাটের সাকো নির্মাণ করা আছে৷ এলাকার সবাই এখানকার সাকোয় পার হয়ে বিভিন্ন এলাকায় আসা যাওয়া করেন৷ চরবেড়ার সাকো বেয়ে পায়ে হেটে ছাড়া তিন চাকার কোনো বাহন কিংবা মোটর সাইকেল নিয়ে পারাপার হওয়া যায় না৷

এলাকার বসতি আছের উদ্দিন , ফরিদ উদ্দীন , ছোরমান আলীসহ আরো অনেকেই জানান বাশের চরাটের সাকোয় পার হয়ে সবাইকে বিভিন্ন এলাকার যেতে হয়৷ নদীর পানি কমলে সাকো নীচে নামিয়ে দেওয়া হয়৷ বাশের সাকোটি এখানকার গ্রামবাসীদের দেওয়া টাকায় নির্মাণ হয়েছে৷ আরো জানানো হয় নদীর পশ্চিম প্রান্তের চরবেড়ার বিদ্যালয় দুটির বহু সংখ্যক ছেলে মেয়ে নদীর ওপারের গ্রামগুলোর বসতি ৷ এরা বাশের চরাটের সাকো বেয়ে পড়ালেখায় বিদ্যালয়ে আসা যাওয়া করে৷ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দুর্ঘটনার ঝুকি নিয়ে বাশের সাকোটি পারাপার হয়ে বিদ্যালয়ে আসা যাওয়া করে৷ এদের কেউ কেউ অভিভাবকের সহায়তায় সাকো পার হয়ে থাকে বলে জানা গেছে ৷

এলজিইডির ধামাইলকান্দি – সলঙ্গা পাকা সড়কের চরবেড়া মোড় থেকে জপঝপিয়া নদী পার হয়ে ভরমোহনীতে এলজিইডির বোয়ালিয়া পাকা সড়কের যোগাযোগ ব্যবস্থা আছে৷ এলাকাবাসীরা জানান চরবেড়ায় জপঝপিয়া নদী ঘাটে ব্রীজ না থাকা তাদের কাছে দুর্ভোগের হয়ে আছে৷ এখানে একটি ব্রীজ নির্মাণ দরকার রয়েছে৷ আর ব্রীজটি হলে ধামাইলকান্দি সড়কের চরবেড়া থেকে ভরমোহনী হয়ে বোয়ালিয়া সড়কের সাথে আড়াআড়ি সরাসরি সহজ সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে উঠবে ৷

সলঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান তালুকদার বলেন চরবেড়ায় নদীটিতে ব্রীজ নির্মাণ হলে এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থার আরো উন্নয়ন হবে৷ উল্লাপাড়া এলজিইডি অফিস সুত্রে , এ সড়ক আইডিতে আছে৷ প্রতিবেদককে উপজেলা প্রকৌশলী আবু সায়েদ বলেন চরবেড়ায় নদীটিতে একটি ব্রীজ নির্মাণ একান্তই দরকার রয়েছে৷ তার বিভাগ থেকে বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে একটি প্রকল্পে ব্রীজ নির্মাণের পরিকল্পনা ও প্রস্তাবনা দেওয়া আছে ৷

Previous articleপাঁচবিবিতে পূর্ব শত্রুতার জেরে দু’পক্ষের মারপিটে আহত ৩, পাল্টাপাল্টি অভিযোগ
Next articleশার্শায় দারুল আমান শিক্ষা সদনের দুই অভিভাবককে মারধর, বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।