ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: বাংলাদেশে অবৈধ অনুপ্রবেশ করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফ। শুধুই কি অবৈধ অনুপ্রবেশ! সীমান্ত পেরিয়ে একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশে এসে এক বৃদ্ধ কৃষককে পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে ও হাত ভেঙে দিয়েছে তারা।

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বুধবার দুপুর ২টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার শিংনগর সীমান্তের একটি গ্রামে। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করলেও তারা নিরুপায়। তবে ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিএসএফকে কড়া ভাষায় প্রতিবাদ জানিয়ে চিঠি দিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি।

আহত কৃষক জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের শিংনগর মোড়ল পাড়া গ্রামের মৃত এরফান আলীর ছেলে এসলাম আলী (৭০)।

এ বিষয়ে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, বুধবার দুপুর ২টার দিকে নিজের পাট ক্ষেতে কাজ করছিলেন বৃদ্ধ এসলাম আলী। এ সময় ভারতের দৌলতপুর ক্যাম্পের ছয়-সাত জন বিএসএফ সদস্য সীমানা পেরিয়ে বাংলাদেশের সীমানায় প্রবেশ করে কোন কারণ ছাড়াই রাইফেলের বাঁট এবং লাঠি দিয়ে এসলামকে পিটিয়ে তার এক হাত ভেঙ্গে দেয়। এ সময় আঘাতে বৃদ্ধর অন্য হাতের একটি আঙ্গুল ভেঙে দেয় বিএসএফ। পরে তাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ফেলে রেখে চলে যায় তারা। এতে এসলামের মাথাও ফেটে যায়। বিষয়টি স্থানীয়রা দেখতে পেলেও ওই সময় ভয়ে কেউ তাকে বাঁচানো তো দূরের কথা এই ঘঁনার প্রতিবাদো করতে সাহস পায়নি।

পরে বিএসএফ সদস্যরা চলে গেলে এসলাম আলীকে উদ্ধার করে প্রথমে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে স্থানীয়রা। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ
হাসপাতাল-রামেকে স্থানান্তর করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মনাকষা ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. সেরাজুল ইসলাম বলেন, ইদানিং বিএসএফ প্রায়ই বাংলাদেশে ঢুকে কৃষকদের নির্যাতন করছে। এরই ধারাবাহিকতার শিকার কৃষক এসলাম। সে নির্যাতনের শিকার। একজন বৃদ্ধ মানুষকে অন্যায়ভাবে মেরে দুই হাত ভেঙে দিয়েছে। বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চৌধুরী জোবায়ের আহমেদ বলেন, সীমান্তে বৃদ্ধকে নির্যাতনের বিষয়টি লোকমুখে শুনেছি। এ বিষয়ে বিজিবি সদস্যরা ব্যবস্থা নেবেন বলে আমি আশা করি।

তবে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বাংলাদেশের সীমানায় প্রবেশ করে বৃদ্ধকে পিটিয়ে আহত করার তথ্য নিশ্চিত করে ৫৩ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ সুরুজ মিয়া জানান, ঘটনার পরপরই আহত ব্যক্তির পরিবারের মাধ্যমে বিষয়টি আমরা জানতে পেরেছি। পরে বিজিবি আহত ব্যক্তির ছেলেকে নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছে এবং সেই সঙ্গে সীমান্তে আরো টহল জোরদার করা হয়েছে। আর এই অনাকাংক্ষিত বিষয়ে বিজিবির পক্ষ থেকে বিএসএফকে কড়া ভাষায় চিঠি দিয়ে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে এবং এ ঘটনার ব্যাখ্যা চেয়ে অনতিবিলম্বে পতাকা বৈঠকের আহবান জানানো হয়েছে বলেও জানান অধিনায়ক সুরুজ মিয়া।

Previous articleনোয়াখালীতে ট্রক চাপায় শিশুর মৃত্যু
Next articleভূঞাপুরে ধারের টাকা চাইতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার নারী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।