মাসুদ রানা রাব্বানী: রাজশাহী মহানগরীতে মোঃ এহেসানুল হক আফ্রিদি (২৫) নামের এক মোবাইল দোকানীকে শরীরের একাধিক ১৫টি স্থানে ছুরিকাঘাত করে নগদ টাকা ও মূল্যবান জিনিষপত্র ছিনতাই করেছে ছিনতাইকারীরা। এতে তার শরীরে ১৪১টি সেলাই দিয়েছে কর্তব্যরত চিকিৎসক।

বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১১:৫০ মিনিটে মহানগরীর চন্দ্রিমা থানাধীন ভদ্রা জামালপুর মাঝার পাশে ছুরিকাঘাতের এ ঘটনা ঘটে।

আহত মোঃ এহেসানুল হক আফ্রিদি মহানগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার গোরহাঙ্গা এলাকার মোঃ একরামুল হক বাবু। গোরহাঙ্গা মসজিদের পাশে আফ্রিদি টেলিকম নামের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের প্রোপাইটার তিনি।

আহত আফ্রিদি জানায়, মোবাইল ব্যবসার জন্য তার জরুরী টাকার প্রয়োজন হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধায় সে তার বোনজামাই সোহেলকে ফোন দিয়ে ১লাখ ৫০ হাজার টাকা প্রয়োজন বলে জানায়। তার বোনজামাই তাকে বাড়ি এসে টাকা নিয়ে যেতে বলে। আফ্রিদি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে রাতে মহানগরীর চন্দ্রিমা থানার জামালপুর এলাকায় তার বোন-জামাইয়ের কাছে টাকা নিতে আসে। তার বোনজামাই সম্পূর্ণ টাকা সংগ্রহ করতে ব্যর্থ হয়। ১লাখ ১০হাজার দেয় অফ্রিদিকে। বোনের বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয় আফ্রিদি। পথে জামালপুর মাঝারের পাশে ৮/৯জন ছিনতাইকারী তাকে ঘিরে ফেলে। এ সময় তারা তার প্যান্টের পকেট থেকে জোর পূর্বক টাকা ছিনতাই করার চেষ্টা করে। শুধু হয় ধস্তাধস্তি। এরই এক পর্যায়ে ছিনতাইকারীরা তাকে এলোপাথাড়ী ভাবে পিঠে, ঘাড়ে পায়ে, ও পেটে ১৫টি স্থানে ছুরিকাঘাত করে গুরুতর আহত করে। আফ্রিদি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে ছিনতাইকারীরা তার পকেট থেকে নগদ ১লাখ ১০ হাজার টাকা, একটি রেডমি এ্যাড্রয়েড মোবাইল ও তার ব্যবহৃত হাতে থাকা একভরি ৪আনা ওজনের স্বর্ণের ব্রেসলেট ছিনতাই করে পালিয়ে যায়। আহতের চিৎকার আর মানুষের হৈচৈ শুনে তার বোনজামাই সোহেল ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয়দের সহযোগীতায় রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে তাকে ৮ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। ওই সময় তার শরীরে ব্যপক রক্তক্ষরন বন্ধে দ্রুত ওটি’তে নেয় কর্তব্যরত চিকিৎসক। রাত ৩টার পরে আফ্রিদির ওটি সম্পন্ন হয়। বর্তমানে আহত ব্যবসায়ী আফ্রিদি রামেকের ৮নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আহত যুবকের বোনজামাই মোঃ সোহেল সরদার জানান, আমার শ্যলককে ছুরিকাঘাত করে নগদ ১ লাখ ১০ হাজার টাকা ও মোবাইল ও স্বর্ণের ব্রেসলেট ছিনতাই করে পালিয়েছে ছিনতাইকারীরা। আল্লাহ্ পাকের কাছে শুকরিয়া আমার শ্যলককে জিবিত রেখেছেন। থানায় মামলা করবেন বলেও জানান তিনি।

এ ব্যপারে শুক্রবার দুপুর সাড়ে ৩টায় চন্দ্রিমা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ এমরান আলী জানান, মোবাইল দোকানীকে ছুরিকাঘাতের বিষয়ে আমার জানা নেই। তবে ভুক্তভোগী ও তার পরিবারের কেউ অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান ওসি।

Previous articleসরকারের হাতে ক্ষমতা থাকতে ইসির পক্ষে সুষ্ঠু নির্বাচন করা সম্ভব নয়: গয়েশ্বর
Next articleবিসিএস উর্ত্তীন ও উচ্চতর ডিগ্রি প্রাপ্ত মানিকছড়ি উপজেলার কৃতি সন্তানদের সংবর্ধনা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।