বাংলাদেশ প্রতিবেদক: মুলাদীতে তিন দিনের ছুটি নিয়ে স্বামীর কাছে মালয়েশিয়া চলে গেছেন এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা। আড়াই মাস ধরে সেখানেই অবস্থান করছেন তিনি। উপজেলার কাজিরচর ইউনিয়নের বাহাদুরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শামসুন নাহার গত ৪ আগস্ট মালয়েশিয়া চলে যান।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, প্রধান শিক্ষকসহ উর্ধ্বতন কাউকে না জানিয়ে ৩ দিনের নৈমিত্তিক ছুটি নিয়ে দেশ ত্যাগ করেন তিনি। পরবর্তীতে সেখান থেকে মোবাইল ফোনে এক সহকর্মীকে বিদেশে অবস্থানের বিষয়টি জানান এবং ৪ বছর পরে এসে বিদ্যালয়ে যোগদান করবেন বলে ঘোষণা দেন। জানা গেছে, কাজিরচর ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামের সুলতান আহমেদের মেয়ে শামসুন নাহার ওরফে সোনিয়া ৬৭নং বাহাদুরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত ছিলেন। তার স্বামী মালয়েশিয়া চাকুরি করেন। শামসুন নাহার সেখানে যাওয়ার লক্ষ্যে তিনি চাকুরির বিষয়টি গোপন করে পার্সপোর্টও করেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. রেজাউল করিম জানান, গত ৪ আগস্ট সহকারী শিক্ষক শামসুন নাহার ৩ দিনের ছুটির আবেদন করেন। বিষয়টি স্বাভাবিক হিসেবে তাঁর আবেদন গ্রহণ করে ছুটি দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি ৩ দিন পরেও বিদ্যালয়ে যোগদান না করায় মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি। পরবর্তীতে তাঁর অনুপস্থিতির বিষয়টি ১১ আগস্ট উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে অবহিত করি। ওই শিক্ষিকার মালয়েশিয়া অবস্থানের বিষয়টি বিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের কাছ থেকে জানতে পেরেছি।

বিদ্যালয়ের জনৈক সহকারী শিক্ষক জানান, তাঁর সহকর্মী শামসুন নাহার ৩ দিনের ছুটি নেওয়ার সময় বিদ্যালয়ের কাউকে কিছু জানাননি। পরবর্তীতে মোবাইল ফোনে বিদেশে অবস্থানের বিষয়টি জানিয়েছেন। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানান, শামসুন নাহার সোনিয়া ম্যাডাম বিদেশ চলে গেছেন। ৪ বছর পর আবার স্কুলে আসবেন। অপরদিকে, বাহাদুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দেরশতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধান শিক্ষক। এসব শিক্ষার্থীর জন্য শিক্ষক রয়েছেন মাত্র ৩জন। ফলে শিক্ষার্থীরা কাঙ্খিত শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন অভিভাবকরা। শিক্ষক উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের না জানিয়ে বিদেশ চলে যাওয়ায় নতুন শিক্ষক নিয়োগ না দেওয়ায় এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

এব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এস.এম জাকিরুল হাসান জানান, অনুমতি ছাড়া সহকারী শিক্ষক শামসুন নাহারের অনুপস্থিতির বিষয়টি জেনে বেতন ভাতা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে সুপারিশ প্রেরণ করা হয়েছে।

Previous articleকলাপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে যুবদল নেতার কটুক্তি, থানায় অভিযোগ
Next articleপুঠিয়ায় চাঁদাবাজির মামলায় চেয়ারম্যানের ছেলে আটক
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।