শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
Homeসারাবাংলাশার্শার বাগআঁচড়ার হার্ট ছিদ্র আরাফ বাঁচতে চায়, বাবা শাওনের আকুতি

শার্শার বাগআঁচড়ার হার্ট ছিদ্র আরাফ বাঁচতে চায়, বাবা শাওনের আকুতি

শহিদুল ইসলাম: হাসিতে ভরা মুখ চার বছর বয়সী আতিকুজ্জামান আরাফ। সারাদিন ছুটে বেড়ানো, খেলাধুলা করে দিন কাটে শিশুটির। সমবয়সী অন্য শিশুরা যখন ক্লান্তিহীনভাবে খেলাধুলায় মত্ত থাকে, তখন মাঝেমধ্যেই অসুস্থ হয়ে পড়ে ছোট্ট আরাফ।

জ্বর শ্বাসকষ্ট, বমি বমি ভাব, বুকে ব্যথাসহ নানা উপসর্গ দেখা দেয় তার। একমাত্র ছেলের অসুস্থতা ঘিরে দুশ্চিন্তায় পড়ে যায় দরিদ্র এ পরিবারটি। অসুস্থ ছেলের এমন মুখভরা হাসিতেও এখন মলিন মুখ বাবা-মায়ের।

যশোরের শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ডের হাদিউজ্জামান শাওন ও গৃহিণী ইসমত আরা আখির একমাত্র ছেলে আরাফ।

জানা যায়, অসুস্থ হওয়ার পর শুরু হয় চিকিৎসা। কিন্তু রোগ সারার কোনো লক্ষণ না দেখে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
পরীক্ষা-নিরীক্ষায় হার্টে ছিদ্র ধরা পড়ে শিশুটির। এর জন্য শিশুটির অপারেশন প্রয়োজন। লাগবে মোটা অংকের টাকা। চিকিৎসকের এমন কথা শুনে চিন্তায় পড়েন বাবা-মা।
সরেজমিনে গিয়ে জানা গেল, ধারদেনা ও জমানো কিছু টাকা ব্যয় করে ছেলের চিকিৎসা করাতে গিয়ে এখন নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন। চিকিৎসার অভাবে একমাত্র ছেলে আরাফের হৃৎপিণ্ডের ছিদ্রর আকার বেড়ে চলেছে।
অপরদিকে ছেলের চিকিৎসা করাতে না পেরে অঝোরে কেঁদে চলেছেন ‘মা ” ইসমত আরা আখি ।

চিকিৎসা জন্য প্রয়োজন হবে তিন লাখ টাকা। পরে টাকার অভাবে চিকিৎসা না করিয়ে ছেলেকে বাড়িতে ফিরিয়ে আনা হয়। চিকিৎসা না করাতে পারলে হয়তো ছেলেকে বাঁচাতে পারবেন না- এমন চিন্তায় বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন বাবা হাদিউজ্জামান শাওন। তাই সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।
এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী ও সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতা কামনা করেছেন শিশু আরাফের বাবা-মা।

চিকিৎসা সহযোগিতার জন্য 01725717017 নাম্বার (বিকাশ) যোগাযোগ করার আহ্বান জানান শিশু আরাফের বাবা হাদিউজ্জামান শাওন।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments