গিয়াস কামাল: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বারদী হাই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে দ্বন্ধকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে বারদী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান লায়ন বাবুল ও সাবেক ইউপি সদস্যসহ ৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে সাবেক ইউপি সদস্য দাইয়ান মেম্বারকে উদ্ধার করে রাজধানীর সোহরাওয়াদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই পক্ষকে শান্ত করে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উপজেলার বারদী হাই স্কুলের ম্যানিজিং কমিটি নিয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও জমিদাতার মধ্যে বিরোধ চলছিল। এই বিরোধের জের ধরে জমিদাতা সাইদ সরকার স্কুল কমিটি নিয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর বিষয়টি তদন্তের জন্য থানা পুলিশকে দায়িত্ব দেন আদালত। এদিকে তদন্ত চলাকালিন সময়ে বুধবার সকাল ১১টার দিকে বারদী ইউপি চেয়ারম্যান লায়ন বাবুল ও তার ভাই আমিনুল বারদী স্কুলের প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফাকে কমিটির প্রথম মিটিং করার জন্য বলেন।

এসময় প্রধান শিক্ষক চেয়ারম্যান বাবুলকে বলেন কমিটি নিয়ে আদালতে মামলা হয়েছে। আদালতের নির্দেশনা না পেলে মিটিং করা সম্ভব নয়। এদিকে লায়ন বাবুল মিটিং করতে স্কুলে এসেছেন এ খবর ছড়িয়ে পড়লে বাবুলের প্রতিপক্ষ জমিদাতা ও মামলার বাদি সাইদ সরকার ও সাবেক ইউপি দাইয়ান সরকার সদস্য স্কুলে এসে লায়ন বাবুলের সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়ে। তর্কের এক পর্যায়ে লায়ন বাবুল দাইয়ানের বুকে ঘুষি মারলে দাইয়ান মাটিয়ে লুটিয়ে পড়ে। পরে দাইয়ান মেম্বারের লোকজন চেয়ারম্যান বাবুল ও তার ভাই আমিনুলকে পিটিয়ে আহত করে। এতে লায়ন বাবুল ও সাইদ সরকারের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে উভয় পক্ষের ৫ জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে সাবেক ইউপি সদস্যদের অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

এ ব্যাপারে জমিদাতা সাইদ সরকার জানান, বারদী স্কুলটি প্রায় ১৯০০ সালে আমাদের জমির উপর তৈরী হয়। সেজন্য আমি এমপি সাহেবের ডিও লেটার নিয়ে শিক্ষা বোর্ডে জমা দিয়েছি সভাপতি পদের জন্য। কিন্তু লায়ন বাবুল এমপি সাহেবের স্বাক্ষর নকল করে ভূয়া ডিও লেটার দিয়ে সরাসরি বোর্ড থেকে স্কুলের সভাপতি হয়ে এসেছেন। সে জন্য আমি আদালতে একটি ভূয়া স্বাক্ষরের মামলা দায়ের করে কমিটি বাতিলের আবেদন করেছি। এরমধ্যে লায়ন বাবুল জোড় করে স্কুলে প্রবেশ করে কমিটির প্রথম মিটিং করার জন্য প্রধান শিক্ষককে হুমকি প্রদান করে। খবর পেয়ে আমরা স্কুলে আসলে লায়ন বাবুল ও তার লোকজন আমাকে ও আমার লোকজনকে মারধর আহত করে। আহতদের মধ্যে দাইয়ান সরকার অবস্থা আশংকাজনক তাকে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে বারদী ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মোবাইল ফোন রিসিভ করেনি। এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার ওসি মাহবুব আলম জানান, বারদী স্কুলে কমিটি নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে ঝামেলা হচ্ছে এ খবর পেয়ে আমরা পুলিশ প্রেরণ করি। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

Previous articleলালমনিরহাট সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত
Next articleনোয়াখালীতে শিশু শ্রেণির শিক্ষার্থী ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে দপ্তরি গ্রেফতার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।