রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪
Homeসারাবাংলারংপুরে পৃথক দুটি মামলায় ৫ জনের আমৃত্যু কারাদণ্ড, ১ জনের যাবজ্জীবন

রংপুরে পৃথক দুটি মামলায় ৫ জনের আমৃত্যু কারাদণ্ড, ১ জনের যাবজ্জীবন

জয়নাল আবেদীন: বৃহস্পতিবার রংপুরে পৃথক দুটো আদালতে দুটি মামলার রায়ে ৫জনের আমৃত্যু কারাদন্ড ১জনের যাবজ্জীবন এবং ৪জন বেকসুর খালাস পেয়েছেন। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর আদালতে জেলার তারাগঞ্জে এক কিশোরীকে ধর্ষণের মামলায় সবুজ ওরফে মিঠুন নামে একজনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ৪ জন আসামিকে খালাস দিয়েছে আদালত।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক এম আলী আহমেদ এসময় আসামিকে ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও একমাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন। রায় ঘোষণার সময় আদালতে ৫ জন আসামি উপস্থিত ছিলেন। এদিকে এক কিশোরীকে গণধর্ষণ ও হত্যার দায়ে পাঁচজনের আমৃত্যু কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। তাদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে।

দুপুরে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মো.রোকনুজ্জামান এ রায় দেন।দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- গঙ্গাচড়া উপজেলার নরসিংহ মর্ণেয়া গ্রামের শামসুল আলমের ছেলে আবুজার রহমান হান্নানের ছেলে আলমগীর হোসেন মতিয়ার রহমান মুন্সির ছেলে নাজির হোসেন , আব্দুর রহমানের ছেলে আব্দুল করিম ও আমিনুর রহমান । এদের মধ্যে আলমগীর হোসেন পলাতক। বাকি চার আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলা ও আদালত সূত্রে জানা যায, মামলার প্রধান আসামি অভিযুক্ত আবুজার রহমানের সঙ্গে ভুক্তভোগী কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। একপর্যায়ে মেয়েটি অন্তসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় বিয়ের জন্য চাপ দিলে অস্বীকৃতি জানান আবুজার। ওই কিশোরী তাদের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়টি পরিবারসহ গ্রামাবাসীকে জানিয়ে দেবে হুমকি দিলে প্রেমিক আবুজার তাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন।ঘটনার দিন ২০১৫ সালের ১৪ মে ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা ও মা লালমনিরহাটে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যান। এ সময় ওই কিশোরী ও তার ভাগনি বাড়িতে একা থাকার সুযোগে আবুজার সহযোগীদের নিয়ে সন্ধ্যায় প্রেমিকার বাড়িতে গিয়ে তাকে কৌশলে ডেকে নিয়ে পাশের একটি ক্ষেতে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করেন। পরে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তাকে হত্যা করে পালিয়ে যায়। ওইদিন রাতে তার বাবা-মা বাড়িতে ফিরে মেয়েকে না পেয়ে সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজ নেন। পরদিন সকালে প্রতিবেশীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে ধইঞ্চা ক্ষেত থেকে মেয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করেন। পরবর্তীতে কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে গঙ্গাচড়া থানায় হত্যা মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তৌহিদুল ইসলাম তদন্ত শেষে আবুজারসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। প্রায় সাত বছর মামলাটি আদালতে বিচারাধীন থাকার পর ১০ জনের সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে বৃহস্পতিবার পাঁচ আসামিকে আমৃত্যু কারাদন্ডও এক লাখ টাকা করে জরিমানার আদেশ দেন আদালত।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments