রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪
Homeসারাবাংলাকুড়িগ্রামে সরিষা চাষে লাভবান হওয়ায় আশায় বুক বাঁধছেন চাষিরা

কুড়িগ্রামে সরিষা চাষে লাভবান হওয়ায় আশায় বুক বাঁধছেন চাষিরা

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: পাভেল মিয়া কুড়িগ্রাম সংবাদদাতাঃ কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে চলতি রবি মৌসুমে সরিষা চাষে আগ্রহ বেড়েছে চাষিদের। সরিষা চাষ করে নিজেদের ভোজ্য তেলের চাহিদা মেটাতে, কেউ আবার কেউ লাভবান হওয়ায় আশায় করছেন সরিষার আবাদ। জমিতে বীজ বপনের পর বর্তমানে ক্ষেতে পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষিরা। দিন যতই গড়াচ্ছে কৃষকের নিবিড় মমতায় বেড়ে ওঠা সরিষার খেত হলুদ ফুলে ছেয়ে যাচ্ছে। আর ভালো ফলনের আশায় বুক বাঁধছেন চাষিরা। আর কৃষি বিভাগ বলছে উপজেলায় এবারে করছেন। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অধিক এক হাজার ৬৫০ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষ হচ্ছে।

উপজেলা কৃষি বিভাগ বলছে, এঅঞ্চলে সরিষার চাষাবাদ বৃদ্ধির লক্ষ্যে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে। আমন চাষাবাদের বীজ বপনের সময় থেকেই কৃষকদের স্বল্প মেয়াদি ধান চাষাবাদ করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। ধান চাষাবাদ করে একই জমিতে যাতে অনায়াসে সরিষা সহ অন্যান্য রবি ফসল ফলানো যায় সেজন্য কৃষকদের ব্রিধান-৫৬, ব্রিধান-৭১, ব্রিধান-৫ ব্রধান-

৮০, ব্রিধান-৮: ও বীণা-৪, বীণা -১ জাতের আগাম ও উচ্চ ফলনশীল ধান চাষাবাদের পরামর্শ দেয়া হয়েছিল। মাঠ পর্যায়ে পরিকল্পনা বাস্তবায়নের সুফল মিলেছে। আগেভাগেই ধান কেটে নিয়ে একই জমিতে এখন অনেক কৃষক রবি মৌসুমের চাষাবাদ।

পাশাপাশি সরিষার চাষাবাদ করে করে ভোজ্য তেলের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় উপজেলার ১হাজার ৯০০ কৃ ষকের মাঝে বিনামূল্যে সরিষা বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে।

উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ঘুরে দেখা গেছে, অন্যান্য বছরের তুলনা এবারে অধিক পরিমাণ জমিতে সরিষা চাষ করেছেন স্থানীয় কৃষকরা। উপজেলার চরাঞ্চল থেকে সমতল ভূমিতে তাকাতেই চোখে পড়ছে সরিষার খেত। আর কৃষকরা জানিয়েছেন, অন্যান্য ফসলের চেয়ে

কম খরচ ও সময়ে অল্প ঘাট- খোটুনিতে সরিষার চাষ করে ফসল ঘরে তোলা যায়। পাশাপাশি সারাব হরই বাজারে সরিষার চাহিদা থাকে এবং ভালো নাম পাওয়া যায়। চাষাবাদ করে লাভবান হওয়া যায়। বলে সরিষা চাষে আগ্রহ বেড়েছে তাদের।

উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের শাহবাজার এলাকার কৃষক শাহজাহান আলী জানান, তিনি এবারে তিন বিঘা জমিতে সরিষা চাষ করেছেন। প্রতি বিঘা জমিতে সরিষা চাষাবাদ করতে জমিতেরি, বীজ, সার, সেচ, ওষুধ ও অন্যান্য খরচসহ তার প্রায় পাঁচ হাজার টাকা খরচ হবে। তিনি প্রতি বিঘা জমিতে পাঁচ-ছয় মণ সরিষার ফলন পাওয়ার আশা করছেন। আশানুরূপ ফলন পেলে প্রতি বিঘা জমিতে সরিষা চাষাবাদ করে করে তার ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকা লাভ হবে বলে আশা করছেন তিনি।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments