জহিরুল ইসলাম: রং নাম্বারে পরিচয়, তারপর প্রেম, তারপর দুজন সিদ্ধান্ত নেয় দেখা করার, আর প্রথম দেখাটাই যে শেষ দেখা হবে সেটা জানতো না ১৮ বছরের কিশোরী শ্রাবন্তি। প্রেমিক মুন্না (১৮) এর সাথে দেখা করতে এসে মৃত্যু হলো তার। মৃত শ্রাবন্তি শার্শা উপজেলার টেংরালি গ্রামের আমজাদ আলীর মেয়ে। এবং কিশোর মুন্না চৌগাছা উপজেলার বাড়িয়ালি গ্রামের মফিজুল ইসলামের ছেলে।

জানা যায়, সোমবার দুপুর ১ টার সময় দুই কিশোর কিশোরী দেখা করে ছুটিপুর বাজার জামতলার মোড়ে। দেখা হওয়ার পরে ছেলেটা মেয়েকে হোটেলে নিয়ে যেয়ে দুইটা সিঙাড়া খেতে দেয়। সিঙাড়া খাওয়ার কিছুক্ষণ পরে মেয়েটা অসুস্থ বোধ করে। পরে ছেলেটা একটা ভ্যানে করে ড্রাইভারের সহযোগিতায় ছুটিপুর প্রাইভেট ক্লিনিকে আনলে ক্লিনিকের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা

করেন৷এ বিষয়ে ঝিকরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ সুমন ভক্ত বলেন, বিষয়টি শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। মেয়েটির সাথে থাকা মুন্নাকে জিজ্ঞেসবাদের জন্য থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

Previous articleসিংগাইরে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে এসএসসির ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায়
Next articleঅস্ত্র মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানের ১৭ বছরের কারাদণ্ড
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।