মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২৪
Homeসারাবাংলামিঠাপুকুরে ৭ম শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, ধর্ষক গ্রেফতার

মিঠাপুকুরে ৭ম শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, ধর্ষক গ্রেফতার

জয়নাল আবেদীন: রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় সপ্তম শ্রেণীর এক মাদরাসা ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এছাড়া শ্লীলতাহানির ওই ভিডিও ধারণ করে তা ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত কসমেটিকস দোকানদার লেবু মিয়াকে শনিবার বিকেলে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

কনিবার সন্ধ্যায় গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মিঠাপুকুর খানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজার রহমান।পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার কাফ্রিখাল ইউনিয়নের মিয়ারহাট নামক বাজারে ধর্ষক লেবু মিয়ার একটি কসমেটিকস ও কম্পিউটারের দোকান রয়েছে। ওই বাজারের পাশে একটি প্রাইভেট কোচিং সেন্টারে পড়াশোনা করতে যেতেন স্থানীয় একটি মাদরাসার সপ্তম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক ছাত্রী। ১১/১২ বছর বয়সী ওই ছাত্রী প্রায় তিন মাস আগে প্রাইভেট পড়া শেষে বান্ধবীদের সঙ্গে লেবু মিয়ার কসমেটিকসের দোকানে যান। তখন ওই কিশোরীর ওপর কুনজর পড়ে লেবুর। এক দিন সুযোগ বুঝে মেয়েটিকে দোকানের ভিতরে ডেকে নিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দেয় এবং জোরপূর্বক চুমু খায় সে। এরপর শ্লীলতাহানির ওই ভিডিও ধারণ করে রাখে এ কসমেটিকস দোকানদার। সেই ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে আবারও তার দোকানে ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে লেবু। এভাবে ওই কিশোরীকে ভিডিও ভাইরাল করার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে কসমেটিকস ব্যবসায়ী লেবু মিয়া।

জানা গেছে, তার বাড়ি মিঠাপুকুর উপজেলার কাফ্রিখাল ইউনিয়নের পিরোজপুর গ্রামে। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই ছাত্রী প্রাইভেট শেষে বাড়ি ফেরার পথে লেবু মিয়া ভিডিও ডিলেট করার আশ্বাস দিয়ে নিজ বাড়িতে ডেকে নেয় ওই কিশোরীকে। সে দিন প্রচন্ড ঝড়-বৃষ্টির সুযোগ নিয়ে সারারাত ধরে ওই ছাত্রীর ওপর নির্মম নির্যাতন চালান । এদিকে ওই কিশোরী মেয়েকে না পেয়ে সারারাত ধরে খুঁজতে থাকে তার স্বজনরা। বিভিন্ন আত্মীয়ের বাড়িতেও চলে খোঁজা-খুঁজি। এদিকে সারারাত আটকে রেখে পর দিন সকালে বিকল্প পথে ওই মাদরাসা ছাত্রীকে বাড়িতে পৌঁছে দেয় ধর্ষক লেবু। এরপর সারারাত কোথায় ছিল জানতে চাইলে, পরিবারের লোকজনকে সবকিছু খুলে বলে মেয়েটি।

ঘটনা শুনে মেয়ের বাবা মিঠাপুকুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার পরপরই মিঠাপুকুর থানার পুলিশ সদস্যরা ধর্ষক লেবু মিয়াকে গ্রেফতার করে।এ বিষয়ে মিঠাপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন, বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গেই লেবু মিয়াকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। মেয়েটিকে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থাও চলমান রয়েছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments