মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২৪
Homeসারাবাংলাঈশ্বরদীতে চোরা-গোপ্তা বোমা বিস্ফোরণ; প্রতিবাদে আওয়ামী লীগের মিছিল

ঈশ্বরদীতে চোরা-গোপ্তা বোমা বিস্ফোরণ; প্রতিবাদে আওয়ামী লীগের মিছিল

ঈশ্বরদী প্রতিনিধিঃ সকাল থেকেই ঈশ্বরদীর জীবনযাত্রা ছিলো স্বাভাবিক। দূরপাল্লার বাস ছাড়া স্বল্প দূরত্বের বাস, ট্রেন ও অন্যান্য যানবাহন চলাচল করছিলো। বাজারের দোকানপাট খুলে বেচাকেনাও চলছিল। উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিসে নেতা-কর্মীরাও স্বাভাবিক নিয়মে অবস্থান নিয়ে শান্তি সমাবেশ করছিলো। এরইমাঝে সকাল সাড়ে দশটার দিকে বাজারের পাশে রেলওয়ের ক্যারেজে চোরাগোপ্তা বোমার বিস্ফোরণ ঘটে। এরপরই আতংকগ্রস্থ হয়ে পড়ে দোকানদার ও পথচারীরা। শুরু হয় দৌড়াদৌড়ি এবং দ্রুত মেইনরোডের দোকানপাট বন্ধ হতে থাকে।

এঘটনার পরই আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে শান্তিপূর্ণভাবে অবস্থানকারী নেতা-কর্মীরা দ্রুত শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলের নেতৃত্ব দেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু। মিছিলটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে চাঁদ আলীর মোড়ে এক পথসভা অনুষ্ঠিত করে। পথসভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নায়েব আলী বিশ্বাস।

এসময় আবুল কালাম আজাদ মিন্টু বিএনপি’র জ্বালাও-পোড়াও নৈরাজ্যের প্রতিবাদ জানিয়ে ব্যবসায়ীদের সাহস যুগিয়ে বলেন, আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা রাজপথে আছে। আমরা জীবন দিয়ে সাধারণ মানুষের জীবন ও সম্পদ রক্ষা করবো।  পুলিশ সদস্যকে পিটিয়ে ও বাসের হেলপারকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন,  বিএনপি-জামায়াত গতকাল (শনিবার) আবার প্রমাণ করল, ২০১৩-১৪ সালে তারা যা করেছে, তা আবার শুরু করেছে। গাড়ি পোড়ানো, পুলিশ হত্যা, পুলিশের ওপর হামলা, সাংবাদিকদের ওপর হামলা, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করা হয়েছে বিনা কারণে, বিনা উস্কানিতে। তাদের কাজই হল কিভাবে ধ্বংসাত্মক কাজ করা যায়, নৈরাজ্য সৃষ্টি করা যায়।

দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার জন্য বিএনপি-জামায়াত গতকাল হামলা চালিয়েছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, এটা বিএনপি করবে। তাদের জন্মটাই এভাবে হয়েছে। মানুষ হত্যা করেই ওদের পার্টির জন্ম। কাজেই তারা এটি করবে, আমরা আওয়ামী লীগ জনগণের পাশে আছি এবং সকল নৈরাজ্য প্রতিহত করবে।
আওয়ামী লীগ প্রতিরোধের জন্য আছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে শান্তি সমাবেশ করব নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে। আমরা জনগণকে নিয়ে তাদের (বিএনপি-জামায়াত) প্রতিহত করব। যাতে জনগণের জানমাল ও দেশের সম্পদ রা করা যায়। আগুন সন্ত্রাসীদের জাতি ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলা করবে। মুক্তিযুদ্ধের পে সব শক্তি একসঙ্গে মিলে এই নৈরাজ্য ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে, যুদ্ধাপরাধীদের বিরুদ্ধে, বিএনপির বিরুদ্ধে, জামায়াত-শিবিরের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই অব্যাহত থাকবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হবিবুল ইসলাম হব্বুল, বীর মুক্তিযোদ্ধা আকরাম হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান, শ্রমিক লীগের নেতা জাহাঙ্গিও হোসেন, পাকশীর ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিন্টুসহ আওয়ামী লীগ, অংগ ও সহযোগী সংগঠনের সহস্রাধিক নেতা-কর্মী এসময় উপস্থিত ছিলেন।  পরে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে পুনরায় শান্তি সমাবেশ শুরু হয়।

এদিকে দফায় দফায় শহরে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগ মিছিল বের করে রাজপথ প্রকম্পিত করে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerkagoj.com.bd/
Ajker Bangladesh Online Newspaper, We serve complete truth to our readers, Our hands are not obstructed, we can say & open our eyes. County news, Breaking news, National news, bangladeshi news, International news & reporting. 24 hours update.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments