শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪
Homeসারাবাংলাঈশ্বরদীতে মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৩.২ ডিগ্রি

ঈশ্বরদীতে মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৩.২ ডিগ্রি

স্বপন কুমার কুন্ডু: ঈশ্বরদীর ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে অতি তীব্র তাপপ্রবাহ। এপ্রিলের প্রথম দিন থেকেই ঈশ্বরদীতে তাপপ্রবাহ শুরু হয়। মঙ্গলবার (৩০শে এপ্রিল) ঈশ্বরদীতে মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড হয়েছে। এর আগে ২৯ এপ্রিল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪২.৫ ডিগ্রি ঈশ্বরদীতে রেকর্ড হয়। ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এদিকে অতি তীব্র রোদ ও অসহনীয় গরমে দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে জনজীবন। সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছে রিকশাচালক, দিনমজুর, কুলি ও নিম্ন আয়ের দিনমজুর শ্রেণির মানুষ। গরমের তীব্রতায় সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের প্রাণ ওষ্ঠাগত। প্রখর রোদে ঘাম ঝড়ানো তাপমাত্রার কারণে শ্রমজীবী মানুষ পড়েছেন চরম বিপাকে। অসহনীয় গরমে রাস্তাঘাট-হাটবাজারে লোকসমাগম কমে গেছে। জরুরি কাজ না থাকলে মানুষজন তেমন বাইরে বের হচ্ছেন না। রোদের প্রখরতায় রাস্তার পিচ তপ্ত উষ্ণতা ছড়াচ্ছে।

গত কয়েক দিনের তাপদাহে শহরের পোস্ট অফিস মোড় সংলগ্ন ঈশ্বরদী-পাবনা মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে বিটুমিন গলে গেছে । এতে সড়কে চলাচলকারী যানবাহনের চাকায় পিচ আটকে যাচ্ছে। ফলে চালকরা ধীরগতিতে গাড়ি চালাচ্ছেন।

তীব্র খরায় ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় টিউবওয়েলে পানি উঠছে না। ফলে উপজেলাজুড়ে তীব্র পানি সংকট দেখা দিয়েছে। পৌরসভার পানি বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী প্রবীর বিশ্বাস বলেন, সাপ্লাই লাইনে পানি সরবরাহের জন্য সবকটি মেশিন চালিয়েও পানি সরবরাহ করতে কষ্ট হচ্ছে। খরা মৌসুমের শুরুতেই এবারে ভূগর্ভস্থ পানির স্তর অনেক নিচে নেমে গেছে।

ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিসের সহকারী পর্যবেক্ষক নাজমুল হক রঞ্জন জানান, ঈশ্বরদীসহ পার্শ্ববর্তী এলাকায় পারদের কাঁটা অতি তীব্র তাপপ্রবাহ ৪৩.২ ডিগ্রি ছুঁয়েছে। গতকাল সোমবার (২৯শে এপ্রিল) বেড়ে হয়েছে ৪২.৫ ডিগ্রি। চলতি সপ্তাহে তাপমাত্রা আরও বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments