রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪
Homeঅপরাধতাহিরপুরে বিদ্যালয়ের রড চুড়ি, ২০০ কেজি উদ্ধার

তাহিরপুরে বিদ্যালয়ের রড চুড়ি, ২০০ কেজি উদ্ধার

আহম্মদ কবিরঃ সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে মন্দিয়াতা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্মানাধীন ভবনের রড চুরি করে বিক্রির পর ২০০কেজি রড উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা।

আজ (১৩সেপ্টেম্বর)বুধবার ভোরে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের মন্দিয়াতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সানজু মিয়া বিদ্যালয়ের নির্মানাধীন ভবনের রড চুরি করে বিক্রির পর টের পেয়ে স্থানীয়রা পার্শ্ববর্তী মুজরাই গ্রাম সংলগ্ন পাটলাই নদীতে একটি ভাংগারি ব্যবসায়ী নৌকা আটক করে ২০০কেজি রড উদ্ধার করে। এ সময় স্থানীয় লোকজনের উপস্থিতি টের পেয়ে ছোট একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকা দিয়ে পালিয়ে যায় বিদ্যালয়ের শিক্ষক সা্নজু মিয়া।তবে এ বিষয়টি অস্বীকার করে অভিযুক্ত সাঞ্জু মিয়া জানান আমি রড বিক্রি করিনি আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে আমি পাটলাই নদীতে বিভিন্ন চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে কথা বলি বলে স্থানীয় ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়া এ ষড়যন্ত্র করেছে।

স্থানীয়রা জানায় আজ ভোররাতে মন্দিয়াতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সা্নজু মিয়া এক ভাংগারি ব্যবসায়ীর কাছে বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবনের রড বিক্রি করছে এমন সংবাদ পেয়ে গ্রামের কয়েকজন যুবক পার্শ্ববর্তী মুজরাই গ্রাম সংলগ্ন পাটলাই নদীর পার হতে ভাংগারি ব্যবসায়ীর নৌকা আটক করে ২০০কেজি রড উদ্ধার করে।ওই সময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক সা্নজু মিয়া একটি ছোট সাদা ছইযুক্ত ইঞ্জিনচালিত নৌকা দিয়ে পালিয়ে যায়।তারা জানান এর পূর্বেও উক্ত বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবনের বিভিন্ন সময় রড,সিমেন্টসহ বিভিন্ন সরঞ্জামাদি চুরি হয়েছে।

এ বিষয়ে ভাংগারি ব্যবসায়ী জানায় আমরা যাওয়ার পথে আমাদের আটকিয়ে,আমাদের কাছে সা্নজু মাস্টার রড গুলো ৮হাজার টাকা দিয়ে বিক্রি করে। রড কিনার পর যাওয়ার সময় গ্রামের লোকজন আটক।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়া জানান আমাদের বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবনের বিভিন্ন সময় রড,সিমেন্ট চুরি হয়ে হয়েছে এর সাথে বিদ্যালয়ের শিক্ষক সা্নজু মিয়া জড়িত আছে তার অনেক প্রমাণ আছে,আজ ভোরে এক ভাংগারি ব্যবসায়ীর কাছে ৪০টাকা কেজি ধরে ২০০কেজি রড বিক্রির সময় গ্রামের লোকজন টের পেয়ে রডসহ ভাংগারি ব্যবসায়ীর নৌকা আটক করে রড গুলো উদ্ধার করে,এ সময় সা্নজু মিয়া ছোট একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকা দিয়ে পালিয়ে যায়।বিষয়টি আমাকে জানালে আমি ঘটনাস্থলে এসে বিদ্যালয়ের সভাপতিসহ বিভিন্এজন কে জানাই।
এর কিছুক্ষণ পর সা্নজু মাস্টার লোকজন নিয়ে আসছে রডগুলো চিনিয়ে নিতে,কিন্তু গ্রামবাসী নিতে দেয়নি।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবনের কন্ট্রাক্টর হামিদ মিয়া বলেন বিভিন্ন সময়ে আমার রড সিমেন্ট, বালু পাথর চুরি হয়ে যায়,এ এপর্যন্ত প্রায় ২টন রড চুরি হয়েছে। আজ হাতেনাতে গ্রামবাসী ধরেছে। আমি এ বিষয়ে আইনানুগ ভাবে যা যা করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।উনি বলেন বিভিন্ন সময়ে মালামাল চুরি হওয়ায় আমি মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি।

এ ব্যাপারে তাহিরপুর থানা অফিসার ইন-চার্জ সৈয়দ ইফতেখার হোসেন জানান মন্দিয়াতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রড বিক্রি হয়েছে শুনেছি, এ ব্যাপারে নির্মাণ কাজের দায়িত্বশীলগন বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

তবে এ বিষয়ে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুপ্রভাত চাকমা এঁর সরকারি মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করলেও উনি রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerkagoj.com.bd/
Ajker Bangladesh Online Newspaper, We serve complete truth to our readers, Our hands are not obstructed, we can say & open our eyes. County news, Breaking news, National news, bangladeshi news, International news & reporting. 24 hours update.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments