বেরোবি উপাচার্যের বিরুদ্ধে অন্যায়, অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

জয়নাল আবেদীন: রংপুর বেগেম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লার অন্যায়, অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতারসহ বিভিন্ন অভিযোগ এনে বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটরিয়াতে সাংবাদিক সন্মেলন করেছে অধিকার সুরক্ষা পরিষদ । সংবাদ সন্মেলনে অধিকার সুরক্ষা পরিষদের আহ্বায়ক ও ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. মতিউর রহমান লিখিত বক্তব্যে বলেন, রংপুর বেগেম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লা যোগদান করার পর থেকে আমরা একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছি।এখানকার একাডেমিক এবং প্রশাসনিক শৃঙ্খলা ভেঙ্গে পড়েছে। তিনি নিজেই অবৈধভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬টি অনুষধের মধ্যে ৩টি অনুষধের বিভাগীয় দায়িত্ব পালন করছেন।বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্যের পদটি শূন্য থাকায় এবং তার অনুপস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত কাজে ব্যাঘাত ঘটছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন লঙ্ঘন করে ৭টি বিভাগের প্লানিং কমিটির সদস্য হয়েছে। ক্যাম্পাসে রেজিস্ট্রারও থাকেনা।

বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগে প্রকৌশলী (অব) লে.ক মনোয়ারুলকে পরিচালক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকল্প পরিচালকও করা হয়েছে। তিনিও আজ পর্যন্ত ক্যাম্পাসে আসেন নি। অথচ বেতন নিচ্ছেন লাখ টাকা করে। ৫৮ বছরের এক জনকে বিশ্ববিদ্যালয়ে উপ- প্রকৌশলী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। যেখানে বয়স চাওয়া হয়েছিল ৪০ বছর। কর্মচারী নিয়োগ বোর্ডে উপাচার্যের একান্ত সচীবকে আহবায়ক ও পিএসকে সদস্য সচীব করা হয়েছে। সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আরো বলা হয়েছে, রংপুর বেগেম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লা ক্ষমতা অপব্যবহার করে ঢাকার লিয়াজোঁ অফিসে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভা, নিয়োগ বোর্ড, আপগ্রেডেশনসহ অসংখ্য সভা করেছেন। তিনি ঢাকাতে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি গাড়ি ব্যবহার করছেন। যার একটি ব্যবহার করছেন তার জানিপপ নামে ব্যক্তিগত সংস্থায়।উপাচার্য় বুনিয়াদি ক্লাশ নেওয়ার নাম করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। ভর্তি জালিয়াতির সাথে জড়িত থাকার কথা উল্লেখ করে সংবাদ সন্মেলনে বলা হয়, ভর্তি পরীক্ষার সময় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের এক ছাত্রীকে সর্বচ্চ নাম্বার দিয়ে ছিলেন। তিনি শিক্ষা ও গবেষনার কাজে মন দিলে কোন বিভাগে সেশনজট থাকতোনা বলে সংবাদ সন্মেলনে বলা হয়।সার্বিক বিসয়ে জানার জন্য রংপুর বেগেম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লার সাথে যোগাযোগ কলা হলে তিনি সাংবাদিক পরিচয়ে ফোন রেখে দেন। সংবাদ সন্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. গাজী মাজহারুল আনোয়ার, সদস্য সচিব ফাইন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক খায়রুল কবীর সুমন, বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. তুহিন ওয়াদুদ, গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক কমলেশ চন্দ্র রায়, অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক খন্দকার জাহাঙ্গীর আলম নিরব, রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এইচ এম তরিকুল ইসলাম, ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ারুল ইসলাম প্রমুখ।