বাংলাদেশ প্রতিবেদক: সিরাজগঞ্জের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় ব্যবস্থা গ্রহণে শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসের পর আন্দোলন শিথিল করে প্রশাসনিক ভবনের তালা খুলে দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা।

শনিবার আন্দোলনরত তিনজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলার সময় শিক্ষামন্ত্রী এ আশ্বাস দেন বলে জানা গেছে।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র অর্থনীতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র নাজমুল হাসান পাপন বলেন, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিনকে স্থায়ীভাবে অপসারণ করা হবে বলে শিক্ষামন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন। তার আশ্বাসের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমরা প্রশাসনিক ভবনের তালা খুলে দিয়েছি এবং অবরোধ তুলে নেওয়া হয়েছে।

সোমবারের মধ্যে শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাস বাস্তবায়ন না হলে মঙ্গলবার থেকে আবারও কঠোর আন্দোলন শুরু হবে বলে হুশিয়ারি দেন পাপন।

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল শিক্ষিকা কর্তৃক কেটে দেয়ার ঘটনায় গত মঙ্গলবার রাতে অভিযুক্ত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন তার ওপর অর্পিত অতিরিক্ত ৩টি পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন।

এছাড়া এ ঘটনা তদন্তে রবির রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান লায়লা ফেরদৌস হিমেলকে প্রধান করে ৫ সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই রাত থেকেই তদন্ত কমিটি তদন্ত কাজ শুরু করে। সিসি ক্যামেরার ভিডিও দেখে শিক্ষার্থীদের চুল কেটে দেওয়ার ‘প্রমাণ পাওয়ার’ কথা জানিয়েছে তদন্ত কমিটি।

তদন্ত কমিটির সভাপতি এবং রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান লায়লা ফেরদৌস হিমেল বলেন, ঘটনাস্থলের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ আমাদের হাতে এসেছে। ফুটেজে কাঁচি হাতে শিক্ষার্থীদের চুল কাটার ঘটনার সত্যতা মিলেছে। আমরা তদন্ত কমিটির সদস্যরা মিলে ইতোমধ্যে একাধিক বৈঠক করেছি।

আগামী সোমবারের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া সম্ভব বলে জানিয়েছেন তদন্ত কমিটির সভাপতি লায়লা ফেরদৌস হিমেল।

Previous articleচান্দিনায় কিশোরীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার
Next articleমুফতি ইব্রাহিম কারাগারে
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।