মেয়ের বয়স যখন ১৩ বছর, স্বামীর সঙ্গে মেয়ের সেক্স ভিডিও তুলেছিলেন মা নিজেই। এই ঘটনায় ১৯৯৬ সালে শাস্তিও পান দম্পতি। ২০ বছর পর আমেরিকার এক জনপ্রিয় টেলিভিশন শোতে মুখোমুখি হন মা ও মেয়ে। এরপর আর মেয়ের চোখে চোখ মেলাতে পারলেন না মা। ২০ বছর পর মেয়েকে দেখেই আত্মবিলাপে ভেঙে পড়লেন মা। তিনি বলেন, আমার নিজেকে ঘৃণা হয়। মেয়ে আমান্ডা বলেন, বাবার সঙ্গে যৌনদৃশ্য নিজে হাতে, দাঁড়িয়ে থেকে শুট করেছেন মা- মাথা তুলে কথা বলতে পারেননি মা জাস্টিন। চোখের পাতা যেন অনির্দিষ্ট কালের জন্য মৌনতায় জড়িয়েছে নিজেকে, শুধু জল পড়ছে বৃষ্টির মতো। এ কেমন মা!

টেলিভিশন শোতে মেয়ে আমান্ডা বলছেন, আমার নির্মলতা আমার থেকে চুরি করা হয়েছে। আমি সেই পরিবারের মেয়ে যার মা-বাবা তাদের সঙ্গেই যৌন কাজ করতে বাধ্য করে। আমি তখন মাত্র ১৩। সেই ঘটনার পর কেটে গেছে ২০ বছর, এখনও এটা ভাবলেই দুঃস্বপ্ন ফিরে আসে, আমার মা-বাবা দুজনই জেল থেকে ছাড়া পেয়েছেন, এখন তারা দুজনই ঘুরে বেড়াচ্ছে আমার চোখের সামনে দিয়েই।

মেয়ের কথার পর অনুতপ্ত মা বলেন, আমি এই পৃথিবীর সেই হতভাগ্য মা, যে নিজের স্বামীকে নিজের সন্তানের সঙ্গে সেক্স করতে দেখছি। আমার যদি সে ক্ষমতা থাকত, আমি তাহলে সব ফিরিয়ে দিতাম। উল্লেখ্য, আমেরিকার আদালত জিম ও জাস্টিনের এই জঘন্য অপরাধের শাস্তি হিসেবে ২০ বছরের কারাবাসের নির্দেশ দেন। ১৯৯৬ সাল থেকে ২০১৬ পর্যন্ত জেলে থাকার পর এখন তারা দুজনই মুক্ত।