বাংলাদেশ ডেস্ক: পর্নো ভিডিও তৈরি ও অ্যাপের মাধ্যমে সরবরাহের মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী ধনকুবের রাজ কুন্দ্রা। এক অভিনেত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে গত ১৯ জুলাই রাজকে থানায় ডেকে পাঠায় মুম্বাই পুলিশ। এরপর জিজ্ঞাসবাদের পর তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

এরপরই রাজ কুন্দ্রার পর্নোগ্রাফি ব্যবসার খুঁটিনাটির খোঁজে উঠে পড়ে লাগে মুম্বাই পুলিশের অপরাধ দমন শাখা। সেই তদন্তে কেঁচো খুড়তে গিয়ে যেন এনাকোন্ডা বের হচ্ছে। এবার ফাঁস হয়েছে রাজ কুন্দ্রার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট। যেখান থেকে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য জানতে পেরেছে পুলিশ।

এক সংবাদ সংস্থাকে পুলিশ জানায়, ১২১টি ভিডিও ১২ লাখ ডলারে (বাংলাদেশি মূদ্রায় ১০ কোটি ১৭ লাখ টাকা) বিক্রি করতে চলেছিলেন রাজ কুন্দ্রা! আন্তর্জাতিক বাজারে এসব পর্নো ভিডিও ক্লিপ বিক্রি করতেন তিনি।

ওই টাকা রাজ কি করতেন সেই প্রশ্নে পুলিশের সন্দেহ, পর্নোগ্রাফির ব্যবসা করে পাওয়া টাকা অনলাইন জুয়ায় খরচ করতেন রাজ।

মুম্বাই পুলিশ বলছে, ইয়েস ব্যাংক এবং আফ্রিকার ইউনাইটেড ব্যাংকে রাজের দুটি অ্যাকাউন্ট রয়েছে। ওগুলো খতিয়ে দেখলেই ওই অর্থ কোথায় খরচ হয় তার খোঁজ মিলবে।

এদিকে শুক্রবার রাজ-শিল্পার মুম্বাইয়ের জুহু এলাকার বাড়ি তল্লাশি করে পুলিশ। পুলিশের পক্ষ থেকে আদালতে জানানো হয়, রাজের বাড়ি থেকে ৫১টি নীল ছবি উদ্ধার হয়েছে। এসব ভিডিওর মধ্যে ৩৫টি ‘হটশটস’ অ্যাপেও পাওয়া গেছে।

পুলিশ বলছে, রাজের গ্রেফতারের পর তার বাড়ি ও অ্যাপ থেকে অনেক তথ্য মুছে ফেলা হয়েছে। প্রযুক্তি ব্যবহারে সেসব তথ্য পুনরুদ্ধারের চেষ্টা চলছে। ‘হটশটস’ অ্যাপ বাতিল করে দিয়ে ব্যবসা চালানোর জন্য ‘বলিফেম’ নামে একটি অ্যাপ বাজারে আনার পরিকল্পনা করেছিলেন রাজ।

এসব তথ্য রাজের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে পাওয়া গেছে। শুক্রবার আদালতে সব তথ্য পেশ করে মুম্বাই পুলিশ। তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

Previous articleদেশে করোনায় আরও ১৯৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৬ হাজার ৭৮০
Next articleভাইস চেয়ারম্যানের বাড়িতে হামলার পর শান্তির প্রস্তাব কাদের মির্জার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।