বুধবার, মে ২২, ২০২৪
Homeবিনোদনইংল্যান্ডে মুক্তি পেল না ‘মুসলিম বিদ্বেষী’ ভারতীয় ছবি

ইংল্যান্ডে মুক্তি পেল না ‘মুসলিম বিদ্বেষী’ ভারতীয় ছবি

বাংলাদেশ ডেস্ক: ইংল্যান্ডে মুক্তি পেল না মুসলিম বিদ্বেষসহ শত বিতর্কে জর্জরিত ভারতের ছবি ‘দ্য কেরালা স্টোরি’। তবুও বক্স অফিসে বেশ ভালো করছে সুদীপ্ত সেন পরিচালিত ছবিটি। মাত্র ৯ দিনেই দেশে ১০০ কোটির গণ্ডি ছুঁয়ে ফেলেছে আদা শর্মার এই ছবি।

দেশে ফাটাফাটি সাফল্য পাওয়ার পর ১২ মে এটি ৪০টির বেশি দেশে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। তবে অন্যান্য দেশের মতো ইংল্যান্ডেও এটি মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও নির্দিষ্ট দিনে সেখানে মুক্তি পেল না ছবিটি। যদিও সেখানে ক্ষমতায় রয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ঋষি সুনাক।

ব্রিটিশ বোর্ড অব ফিল্ম সার্টিফিকেশনের (বিবিএফসি) পক্ষ থেকে দেরি করায় এই ছবি সে দেশে মুক্তি পেতে দেরি হচ্ছে বলে জানা গেছে।

একজন ব্রিটিশ সিনেমা অপারেটর জানিয়েছেন, এই ছবির প্রদর্শন আটকে গেছে কারণ এখনো এই ছবিতে কোনো এজ রেটিং পড়েনি। তাই ১২ মে মুক্তি পেল না এই ছবি।

বিবিএফসির পক্ষ থেকে তাদের টুইটার হ্যান্ডেলে জানানো হয়েছে, এখন এই ছবির ক্লাসিফিকেশন চলছে।

তারা আরো জানিয়েছে, একবার দ্য কেরালা স্টোরি এজ রেটিং পেয়ে গেলেই সে দেশে মুক্তি পাবে।

এই টুইটে লেখা হয়েছে, ‘দ্য কেরালা স্টোরি এখন আমাদের ক্লাসিফিকেশন প্রসেসের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। একবার এই ছবি বিবিএফসি’র এজ সার্টিফিকেশন রেটিং পেয়ে গেলেই এটা ইংল্যান্ডের সিনেমা হলে মুক্তি পাবে।’

সুদীপ্ত সেন পরিচালিত এই ছবিতে আদা শর্মা ছাড়াও যোগিতা বিহানি, সোনিয়া বালানি, সিদ্ধি ইদনানিকে দেখা যাচ্ছে মুখ্য ভূমিকায়। এই বছরের এটা চতুর্থ হিন্দি ছবি যা ১০০ কোটির গণ্ডি পার হলো।

মধ্য প্রদেশ, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশে এই ছবিকে ট্যাক্স ফ্রি ঘোষণা করা হয়েছে। অন্যদিকে তামিলনাড়ুতে ছবি চলছে না বলে ছবিটাকে হল থেকে সরানো হয়েছে। আর পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এই ছবিটিকে উসকানিমূলক আখ্যা দিয়ে জরুরি ভিত্তিতে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছেন। এই বিষয়ে বিস্তর পানিঘোলা হয়েছে। ব্যাপারটা সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত পৌঁছেছে।

অন্যদিকে, আদা শর্মা এবং পরিচালক সুদীপ্ত সেন একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়ার সময় এদিন সড়ক দুর্ঘটনার কবলে পড়েন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তারা স্থিতিশীল আছেন বলেই অভিনেত্রী জানিয়েছেন।

এই ছবিটি নিয়ে যেটা অনেকেরই মূল আপত্তি সেটা হলো এর বিষয়। অনেকেই এটিকে মুসলিমদের বিরোধি হিসেবে সম্বোধন করছে। ইসলাম ধর্মের বিরুদ্ধে প্রোপাগান্ডা। অনেকেই আবার বলছেন, এই ছবিটি উসকানিমূলক, যা কোনো অপ্রীতিকর সহিংসতা ছড়াতে পারে।

তবে দ্য কেরালা স্টোরির প্রযোজক বিপুল অমৃতলাল শাহ সম্প্রতি দাবি করেছেন, এই ছবি মুসলিম বা ইসলাম ধর্মের বিরুদ্ধে নয়, এটা উগ্রবাদীদের বিরুদ্ধে।

উল্লেখ্য, কেরালা স্টোরি ছবিটি কেরলের তিন নারীর কাহিনী। ফিল্মে দাবি করা হয়েছে, লাভ জিহাদের ফাঁদে ফেলে তাদের ধর্মান্তরিত করা হয়েছিল। তারপর তাদের সিরিয়া-ইরাকে আইএসআইএস উগ্রবাদী সংগঠনের যৌনদাসিতে পরিণত করা হয়েছিল। আইআইএসে নারীদের উপর কিভাবে অত্যাচার করা হয়, তা বিশদে দেখানো হয়েছে এই ছবিতে। একইসাথে দাবি করা হয়েছে, এই ঘটনা কোনো ব্যতিক্রমী ঘটনা নয়। গত কয়েক বছরে কেরালার অন্তত ৩২ হাজার নারীর একই পরিণতি হয়েছে। যদিও ফিল্ম নির্মাতারা এই তথ্য কোথা থেকে পেয়েছেন, তা জানাতে পারেননি।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস ও টিভি নাইন

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments