সৌদি আরবে ৬ হাজার টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ

বাংলাদেশ ডেস্ক: উগ্রবাদী মতবাদ প্রচার ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার সৌদি আরবের ৫ হাজার ৯২৯টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে।

শুক্রবার এক ব্লগ পোস্টের মাধ্যমে টুইটার জানিয়েছে, সৌদি সরকারের মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধে টুইটারকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছিল। বন্ধ হওয়া অ্যাকাউন্টগুলোর প্রধান ভাষা আরবি হলেও এগুলোতে পশ্চিমা পাঠকদের জন্য ইংরেজিতে বিভিন্ন পোস্ট দেয়া হতো এবং উগ্রবাদী চিন্তাধারা ছড়ানো হতো। খবর আল জাজিরার।

টুইটার জানিয়েছে, বন্ধ হওয়া বেশিরভাগ অ্যাকাউন্টগুলো সৌদি সরকারি কর্মকর্তাদের। এছাড়া একটি তদন্তের পর টুইটার সৌদি আরবের ‘সামাআত’ কোম্পানির ব্যবহৃত সব টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে। এই কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের দফতর প্রধান বাদর আল-আসাকা। তার বিরুদ্ধে টুইটারে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ আনা হয়েছে।

টুইটার তাদের ঘোষণায় বলেছে, তারা মনে করছে ইরানের ওপর আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা নিয়ে পাশ্চাত্যে যে আলোচনা চলছে সৌদি আরবের এসব অ্যাকাউন্ট থেকে সে প্রক্রিয়ার ওপর প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করা হয়েছে।