বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ডিজিটালাইজেশনের যুগে সারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি, বিকাশ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে ই-কমার্স ইতিবাচক ভুমিকা রাখছে। যার পরিধি প্রতিনিয়ত বাড়ছে। স্বল্প সময়ের মধ্যে পণ্য ক্রয়-বিক্রয় করার সুবিধা থাকায় বিক্রেতারা যেমন লাভবান হচ্ছেন, ক্রেতাদেরও সরাসরি বাজারে গিয়ে পণ্য ক্রয় করতে হচ্ছে না। এর ফলে জ্যামিতিক হারে প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে ই-কমার্সের কর্মকান্ড।

গ্রাহক ই-কমার্সের প্রতি আকৃষ্ট হওয়ার একটা বড় মাধ্যম বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করা। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে গত বছর দেশের ই-কমার্স খাতে নেমে এসেছিল বিপর্যয়। গ্রাহকরা তাদের সর্বস্ব হারিয়ে যখন দিশেহারা, সেই দুঃসময়ে গ্রাহকদের একটা অংশ নিজ উদ্যোগে সামনে এগিয়ে এসে ই-কমার্স বান্ধব আন্দোলন শুরু করে। বাংলাদেশের ইতিহাসে কোন প্রতিষ্ঠানের জন্য করা সবচেয়ে বড় আন্দোলন ছিল এটি। বিভিন্ন ই-কমার্সেও গ্রাহক, গ্রাহক প্রতিনিধিদের দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রম একং আন্দোলনের ফলে ই-কমার্সের বিষয়ে সরকার ও বানিজ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক গ্রাহকদের স্বার্থে বেশ কিছু ইতিবাচক দিক নির্দেশনা আসে। এর প্রেক্ষিতে ই-কমার্স বান্ধব নীতিমালার প্রনয়নসহ গ্রাহকের স্বার্থ রক্ষার বিষয়টিকে আমলে নেওয়া হয়। গ্রাহকদের সেই দূঃসময়ে একটি গ্রাহকবান্ধব সংগঠনের প্রয়োজনীয়তা বিশেষভাবে অনুভুত হয়। যার প্রেক্ষিতে গঠিত হয় বাংলাদেশ ই-কমার্স কাস্টমারস সোসাইটি (বিইসিএস)।

বিভিন্ন ভুক্তভোগী ই-কমার্সের গ্রাহক, গ্রাহক প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে বিইসিএস। সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ মাহফুজুর রহমান জানিয়েছেন, বাংলাদেশ ই-কমার্স কাস্টমারস সোসাইটি একটি অলাভজনক, অরাজনৈতিক ই-কমার্স গ্রাহকবান্ধব সংগঠন। প্রতিষ্ঠানটির মূল উদ্দেশ্য মূল ধারার ই-কমার্সের প্রতি গ্রাহকদের বিশ্বাস ফিরিয়ে আনার পাশপাশি নিরাপদ ই-কমার্স সেবা নিশ্চিত করা। “নিরাপদ ই-কমার্স, গ্রাহকের অধিকার” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে আমরা গ্রাহকের জন্য কাজ করে যাবো। ইতিমধ্যে গ্রাহক বান্ধব নীতিমালা প্রনোয়নের জন্য ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান, ইক্যাব এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়সহ সকলের সাথে গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করতে কাজ করছে বিইসিএস। সকল ই-কমার্স গ্রাহক সংঘঠনের ফ্রন্ট লাইনের যোদ্ধাদের নিয়ে গঠিত হয়েছে বিইসিএসের পরিচালনা কমিটি। কমিটির সকল সদস্যই ই-কমার্সের দুঃসময়ে গ্রাহকদের স্বার্থে নিঃস্বার্থ ভাবে কাজ করেছেন এবং বর্তমানেও করে যাচ্ছেন।

বিইসিএস এর সাধারন সম্পাদক জেসি আলম হৃদয় জানিয়েছেন, গ্রাহকদের অভিযোগ, সমস্যা এবং পরিপূর্ণ গ্রাহকসেবা নিশ্চিতের লক্ষ্যে আলাদা সেল গঠন করে সেই সেলের মাধ্যমে গ্রাহকের মতামত গ্রহন এবং সমস্যার দ্রুত সমাধান করার জন্য কাজ করবে বিইসিএস। আমাদের (www.becs.info) ওয়েবসাইটে ভুক্তভোগী গ্রাহকদের ডাটা সহ সংগ্রহ করা সহ সমস্যা সমাধানের জন্য কাজ শুরু হবে আগামী মাসেই। পাশাপাশি বিইসিএস এর একটি অ্যাপস তৈরীর কাজ চলছে। অ্যাপসের মাধ্যমেও গ্রাহকরা আমাদের সার্ভিস গুলো নিতে পারবেন। বর্তমানে দ্রুততম সময়ে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন বিইসিএস এর অফিসিয়াল ফেসবুক (www.facebook.com/becs.info) পেজ এর মাধ্যমে।

Previous articleকোচিং থেকে ফেরার পথে স্কুলছাত্রীকে ছুরিকাঘাত
Next articleব্যানার নেয়াকে কেন্দ্র করে বিভ্রান্তি, সংবাদ সম্মেলনে সাঁথিয়ার ইউএনও’র ব্যাখ্যা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।