কাগজ ডেস্ক: আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে ধর্মীয় পণ্ডিতদের সভায় আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে অন্তত ৪৩ জন নিহত ও ৮৩ জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে ২৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছে বিবিসি।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটি জানায়, মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্মদিন উদযাপনের জন্য আলেমরা একটি হলে মিলিত হলে সেখানেই বিস্ফোরণ ঘটে। ওই হলটির নাম ইউরেনাস।

হামলা সম্পর্কে কাবুল পুলিশের এক মুখপাত্র জানান, ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে কয়েকশো আলেম এবং তাদের অনুসারীরা ওই অনুষ্ঠান কেন্দ্রে মিলিত হয়। পবিত্র কুরআন থেকে তিলাওয়াতের জন্যই এখানে জমায়েত হয়েছিল তারা।
অনুষ্ঠান কেন্দ্রের এক ম্যানেজার জানিয়েছে, জমায়েতের ঠিক মাঝখানে বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় আত্মঘাতী ওই হামলাকারী। এজন্য হতাহতের সংখ্যা এতো বেশি হয়েছে।

এটা গত কয়েক মাসের মধ্যে কাবুলের সবচেয়ে বড় হামলার ঘটনা। অন্যদিকে এই হামলাকে চলতি বছরে আফগানিস্তানের সবচেয়ে বড় ও বিধ্বংসী হামলা হিসেবে চিহ্নিত করে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সিএনএন।
এখনও পর্যন্ত হামলার দায় স্বীকার করেনি কেউ। তবে সম্প্রতি সব বিধ্বংসী হামলা চালিয়েছে ইসলামিক স্টেট গ্রুপ। এজন্য এই হামলার পেছনেও তাদের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত কয়েকদিন ধরে তালেবানদের হামলার সংখ্যাও বেড়েছে। সব মিলিয়ে বেশ চাপে রয়েছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

Previous articleদক্ষিণ চীন সাগরে আবারো মার্কিন বোমারু বিমান
Next articleব্যবহৃত স্যানিটারি ন্যাপকিন দিয়ে নেশা!
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।