বাংলাদেশ ডেস্ক: সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মিত কৃত্রিম উপগ্রহ বহনে সক্ষম একটি রকেট উন্মোচন করেছে ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। ‘জুলজানাহ’ নামের রকেটটি ২২০ কেজি ওজনের যেকোনো স্যাটেলাইট বা কৃত্রিম উপগ্রহকে ভূপৃষ্ঠ থেকে ৫০০ কিলোমিটার উচ্চতায় স্থাপন করতে পারবে।

ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মহাকাশ বিভাগের মুখপাত্র আহমাদ হোসেইনি জানান, রকেটটিতে সর্বাধিক শক্তিশালী কঠিন জ্বালানী ইঞ্জিন প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। ইরানি বিজ্ঞানীরা প্রথমবারের মতো কঠিন জ্বালানী ব্যবহার করে মহাকাশে রকেট পাঠাতে সক্ষম হলেন।

তিনি বলেন, “এ যাবৎকালের মধ্যে আবিষ্কৃত সর্বাধিক শক্তিশালী কঠিন জ্বালানী ইঞ্জিন প্রযুক্তি আয়ত্বে আনার পর ইরানি বিশেষজ্ঞরা এই প্রথমবারের মতো কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপক বাহন বা রকেটের পরীক্ষা চালালেন।”

তিনি বলেন, প্রযুক্তিগত দিক দিয়ে তিন ধাপের এই রকেট বিশ্বের যেকোনো আধুনিক রকেটের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে সক্ষম। হোসেইনি বলেন, পরীক্ষামূলক কয়েকটি পরীক্ষা সম্পন্ন করার পর রকেটটির সাহায্যে কক্ষপথে কৃত্রিম উপগ্রহ স্থাপন করা হবে।

তিনি জানান, কঠিন জ্বালানী ইঞ্জিন প্রযুক্তি আয়ত্ব করার ফলে এখন মহাকাশে স্যাটেলাইট পাঠাতে ব্যয় কমবে এবং রকেটের গতি বাড়বে।

ইরান এতদিন তরল জ্বালানীচালিত বেশ কয়েক ধরনের রকেট ব্যবহার করে ভূপৃষ্ঠের কক্ষপথে একাধিক কৃত্রিম উপগ্রহ স্থাপন করেছে। ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে প্রথমবারের মতো একটি সামরিক স্যাটেলাইট ভূপৃষ্ঠের কক্ষপথে স্থাপন করে।

Previous articleট্রেনে কাটা পড়ে রেলওয়ের কর্মকর্তা নিহত
Next articleবিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মৃত্যু: ৫ বন্ধু মিলে মদের পার্টি করেছিল রেস্টুরেন্টে
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।