বাংলাদেশ ডেস্ক: মেক্সিকো সীমান্তে আটকে পড়া ২৫ হাজার অভিবাসীকে যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। আগামী সপ্তাহ থেকে এ কার্যক্রম শুরু হবে। একইসঙ্গে মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণে অর্থ বরাদ্দ স্থগিত করেছেন বাইডেন।

হোয়াইট হাউজে পা রাখার পর থেকেই পূর্বসূরি ট্রাম্প প্রশাসনের আমলে নেয়া বিভিন্ন সিদ্ধান্ত বাতিলের কাজ শুরু করেন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ক্ষমতা গ্রহণের পর পররাষ্ট্রনীতি ঘোষণাতেও আসে নানা পরিবর্তন। যুক্তরাষ্ট্রে শরণার্থী প্রবেশের বিষয়ে ট্রাম্প কঠোর অবস্থানে থাকলেও বাইডেন উদার হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। ট্রাম্প আমলে বন্ধ হয়ে যাওয়া ‘রিফিউজি অ্যাডমিশন প্রোগ্রাম’ আবারও চালুর কথা জানান তিনি।

এরই ধারাবাহিকায় মেক্সিকো সীমান্তে আটকে পড়া ২৫ হাজার শরণার্থীকে যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাইডেন প্রশাসন। আগামী সপ্তাহে শুরু হবে এ কার্যক্রম। যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের আগে এসব শরণার্থীর তালিকা তৈরির পাশাপাশি করা হবে কোভিড টেস্ট। প্রতিদিন গড়ে ৩শ’ জনকে ঢুকতে দেয়া হবে।

অভিবাসী গ্রহণের পাশাপাশি ট্রাম্প আমলে শুরু হওয়া মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাইডেন। ওয়াশিংটনের এমন সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট।

মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদর বলেন, ক্ষমতা গ্রহণের পর প্রেসিডেন্ট বাইডেন যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা সত্যই ঐতিহাসিক। তার এই সিদ্ধান্তকে আমরা স্বাগত জানাচ্ছি।

২০১৬ সালের নির্বাচনী প্রচারণায় মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণকে রাজনৈতিক ইস্যু হিসেবে ব্যবহার করেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ক্ষমতা গ্রহণের পরপরই সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে কাজ শুরু করেন। এতে মেক্সিকোর সঙ্গে দূরত্ব বাড়ার পাশাপাশি অভিবাসী ইস্যুতে কঠোর অবস্থানের কারণে আন্তর্জাতিকভাবে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন ট্রাম্প।

Previous articleপুলিশের লাঠিপেটায় বিএনপির সমাবেশ পণ্ড, আটক ৫০
Next articleদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রায় তিনগুণ মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।