বাংলাদেশ ডেস্ক: করোনা প্রতিরোধ টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর মারা গেছেন এক ব্যক্তি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর। তিনি একজন চক্ষু বিশেষজ্ঞের গাড়ি চালক ছিলেন। মঙ্গলবার (৯ মার্চ) ভারতের মহারাষ্ট্রে এ ঘটনা ঘটে। তবে মৃত্যুর কারণ এখনো অজানা বলে খবর প্রকাশ করেছেন ভারতীয় গণমাধ্যম।

গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, মৃত ব্যক্তির নাম সুখদেব কিরদাত। মঙ্গলবার ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ১৫ মিনিটের মধ্যে জ্ঞান হারান তিনি। তার কিছুক্ষণ পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুর কারণ জানতে তার মরদেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। গত ২৮ জানুয়ারি করোনার প্রথম টিকা নিয়েছিলেন তিনি।

স্থানীয় হাসপাতালে ডাক্তার কে আর কারাত বলেন, ‘প্রথম করোনার টিকা নেওয়ার পর তখন কোনো সমস্যা হয়নি তার। টিকা দেওয়ার আগে তার সম্পূর্ণ চেক-আপ করা হয়েছিল। তবে তার রক্তচাপের সমস্যা ছিল। অনেক বছর ধরেই এ সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। কিন্তু মঙ্গলবার রক্তচাপ এবং শরীরে অক্সিজেনের পরিমাণ একেবারেই স্বাভাবিক ছিল।’

ভারতীয় নাগরিকদের জন্য পর্যাপ্ত টিকার ব্যবস্থা করেছে সরকার। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন গত সোমবার জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় টিকা কর্মসূচিতে কোনো রকম ঘাটতি হবে না। ভারতে ‘কোভ্যাক্সিন’ ও ‘কোভিশিল্ড’ টিকা দেওয়া হচ্ছে। এরই মধ্যে ২৯ লাখ মানুষ টিকা নেওয়ার জন্য নাম নিবন্ধন করেছেন।

সূত্র: নিউজ১৮ বাংলা

Previous articleবিএনপির ৪ নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন
Next articleবিএনপিকে ২৩ শর্তে সমাবেশের অনুমতি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।