বাংলাদেশ প্রতিবেদক: দিল্লির বাটরা হাসপাতালে মেডিকেল অক্সিজেন ফুরিয়ে যাওয়ার পর এক চিকিৎসকসহ অন্তত আট জনের মৃত্যু হয়েছে। গত এক সপ্তাহের মধ্যে ভারতে দ্বিতীয়বারের মতো এমন ঘটনা ঘটেছে। দিল্লিভিত্তিক টেলিভিশন এনডিটিভি এমন খবর দিয়েছে।

মারা যাওয়া আটজনের মধ্যে ছয়জনই হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি ছিলেন। আর দুজন ওয়ার্ডের।

আর ওই চিকিৎসকের নাম ডা. আরকে হিমথানি। তিনি গ্যাসট্রোএন্ট্রোলজি বিভাগের প্রধান ছিলেন।

দিল্লি হাইকোর্টকে হাসপাতালের কর্মকর্তারা বলেন, অন্তত ৮০ মিনিট ধরে ২৩০ রোগীকে অক্সিজেন দেওয়া সম্ভব হয়নি।

মহামারি সামলাতে হিমশিম খাওয়া ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালে অক্সিজেন সংকট প্রকট হয়ে উঠেছে।

হাসপাতালটি জানায়, শুক্রবার দিনগত রাত পৌনে ১২টায় অক্সিজেন শেষ হয়ে গেছে। আর নতুন সরবরাহ এসেছে রাত দেড়টায়। অর্থাৎ একঘণ্টা ২০ মিনিট অক্সিজেনবিহীন থাকতে হয়েছে।

আদালত জানায়, কোনো মানুষের মৃত্যু হোক, তা আমরা চাই না। জবাবে হাসপাতালটি বলছে, মৃতদের মধ্যে আমাদের একজন চিকিৎসকও আছেন।

বরাদ্দের অক্সিজেন না পেয়ে সন্ধ্যায় ৭টায় সরকারি নিয়োগ দেওয়া কর্মকর্তাদের জানিয়েছিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তারপরেও যথাসময়ে অক্সিজেন পায়নি তারা।

Previous articleহেফাজতের সহকারী মহাসচিব জাফর আহমদ গ্রেফতার
Next articleসস্তায় চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয় : কর্মকর্তাকে মৃত্যুদণ্ড কিমের, শাস্তি পাবে ৩ প্রজন্ম!
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।