বাংলাদেশ ডেস্ক: ভারতের ঝাড়খণ্ডে জঙ্গল থেকে ১৬ বছর বয়সী এক কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার (৯ জুন) ঝাড়খণ্ডের পলামৌ জেলার লালিমাটি জঙ্গল থেকে ওই কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পাঁকি থানার অন্তর্গত বুধাবার গ্রামের বাসিন্দা ওই কিশোরী স্থানীয় একটি স্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ও বিজেপি নেতার মেয়ে।

পুলিশ জানায়, গাছ থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধারের সময় ওই কিশোরীর ডান চোখ উপড়ানো ছিল। সকালে মরদেহ উদ্ধারের পর ওইদিন সন্ধ্যায় সৎকার করা হয়।

পাঁকি থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অশোক কুমার জানান, ৭ জুন সকাল ১০টায় বাড়ি থেকে বের হয় ওই কিশোরী। তারপর সে আর বাড়ি ফেরেনি। মঙ্গলবার তার বাড়ির লোক থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করে।

‘বুধবার খোঁজাখুঁজির সময় গ্রামবাসীরা বুধাবার গ্রামের কাছে জঙ্গলে একটি গাছে তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান। পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মেদিনী রাই মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে নিয়ে যায়।’

এ বিষয়ে পলামৌর পুলিশ সুপার সঞ্জীব কুমার জানান, ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। সব দিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে, ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে ওই কিশোরীর সঙ্গে একজনের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু তা নিয়ে প্রবল আপত্তি ছিল কিশোরীর পরিবারের। এ নিয়ে দিন কয়েক আগে পরিবারের লোকের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এরপর থেকেই নিখোঁজ ছিল ওই কিশোরী।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, ঘটনাস্থল থেকে একটি মোবাইল উদ্ধার হয়েছে। ওই মোবাইলের কল রেকর্ডের সূত্র ধরে প্রদীপ কুমার সিংহ ধানুক নামের ২৩ বছর বয়সী এক তরুণকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সূত্র: আনন্দবাজার

Previous articleসিংগাইরে মুদি দোকানদারকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ১
Next articleতিন শূন্য আসনে ভোটগ্রহণের তারিখ পরিবর্তন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।