বাংলাদেশ ডেস্ক: ফিলিপাইনে বিমানবাহিনীর একটি বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৯ জনে দাঁড়িয়েছে। আজ রোববার ওই দুর্ঘটনার পর প্রাথমিকভাবে ১৭ জনের মৃত্যু কথা জানানো হয়েছিল। কিছু মানুষকে উদ্ধার করা গেলেও প্রাণহানি বেড়েছে।

দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় সুলু প্রদেশের পাতিকুল এলাকায় আজ রোববার দুপুরে ওই বিমান বিধ্বস্ত হয়। অবতরণের সময় দুর্ঘটনায় পড়া লকহিড কোম্পানির তৈরি সি-১৩০ বিমানটিতে দেশটির সামরিক বাহিনীর ৯২ জন আরোহী ছিলেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, বিমান দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৯ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে ৫০ জনকে।

ফিলিপাইনের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান জেনারেল কিরিলিতো সোবেজানা জানিয়েছেন, বিমানটিতে কমপক্ষে ৯২ জন আরোহী ছিলেন এবং ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলে অবতরণের সময় বিমানবন্দরের পার্শ্ববর্তী একটি গ্রামে সেটা বিধ্বস্ত হয়।

তিনি আরও বলেন, বিধ্বস্ত ওই সামরিক বিমানটি সি-১৩০ মডেলের এবং দুর্ঘটনার পর সেখান থেকে ৫০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। বিধ্বস্ত বিমানটি সৈন্যদের এক স্থান থেকে অন্য স্থানে পরিবহণের কাজে নিয়োজিত ছিল বলেও জানান তিনি।

ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলা থেকে জামেলা আলিন্দোগান জানিয়েছেন, বিমানটি যেখানে বিধ্বস্ত হয়েছে, তার পাশেই ফিলিপাইনের একটি বিশাল সামরিক ঘাঁটি রয়েছে। তাই বিমানে করে সেখানে সৈন্যদের পরিবহণের কাজটা নিয়মিত করা হতো।

উদ্ধারকৃত সেনাদের হেলিকপ্টারের মাধ্যমে পার্শ্ববর্তী হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

দুর্ঘটনাস্থলে এখনও উদ্ধার কাজ চলছে। নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

Previous articleলকডাউনের চতুর্থ দিনে রাজধানীতে দুপুর পর্যন্ত গ্রেফতার ৪২৯, জরিমানা পৌনে ৯ লাখ টাকা
Next article‘খালেদা জিয়ার অনাকাঙ্ক্ষিত কিছু ঘটলে দায় সরকারের’
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।