বাংলাদেশ ডেস্ক: কলম্বিয়ার ভেনিজুয়েলা সীমান্তে প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী গ্রুপগুলোর মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ২৩ জন নিহত হয়েছে। এর মধ্যে ভেনিজুয়েলার চারজন রয়েছে।

দেশটির উপ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জায়রো গারসিয়া সোমবার উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় আরাউকার গ্রামীণ এলাকা থেকে ২৩ জনের লাশ উদ্ধারের কথা জানান।

প্রেসিডেন্ট ইভান দাক বলেন, কলম্বিয়ার শেষ স্বীকৃত গেরিলা গ্রুপ ইএলএন এবং দলত্যাগী ফার্ক বিদ্রোহী গ্রুপের মধ্যকার এ সহিংসতায় হতাহতদের মধ্যে সম্ভবত বেসামরিক নাগরিকও রয়েছে।

তিনি অভিযোগ করেন, সীমান্তের ভেনিজুয়েলার অংশে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নিকোলাস মাদুরো বিদ্রোহীদের মদদ দিচ্ছেন।

উল্লেখ্য, উভয় দেশের মধ্যে দুই হাজার ২০০ কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী দিয়াগো মোলানো বলেন, সম্প্রতি ইএলএন বিদ্রোহীদের সাথে ফার্ক গ্রুপের সাবেক যোদ্ধাদের সাথে মিত্রতা হয়েছে। এদের সাথে ফার্ক গ্রুপের দলত্যাগী আরো দুটো গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষ ঘটে।

ধারণা করা হচ্ছে কলম্বিয়া সীমান্তে প্রায় আড়াই হাজার সক্রিয় ইএলএন সদস্য এবং পাঁচ হাজারেরও বেশি ফার্ক দলত্যাগী সদস্য তাদের তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

Previous articleগোয়েন্দা সংস্থার পরিচয়ে তৈমূরের কাছে চাঁদা দাবি, যুবক আটক
Next articleউখিয়ায় অসহায় ও দুস্থদের পাশে সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিশন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।